প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রুমি আহমেদ: আমার ধারণা, দেশের অধিকাংশ মানুষের ইতোমধ্যে করোনা ইনফেকশন হয়ে গেছে

রুমি আহমেদ: বাংলাদেশের কেস সনাক্তকরণ ড্রামাটিক্যালী কমছে। অনেকেই এই নাম্বার/গ্রাফ বিশ্বাস করবেন না। অবিশ্বাস হবারই কথা, যখন টেস্টের পরিমাণ দশগুণ বাড়িয়ে দেওয়ার কথা তখন হাস্যকরভাবে টেস্টের সংখ্যা কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। তারপর আমি এই গ্রাফটাকে বিশ্বাস করে চাই- বিশ্বাস করি। কারণ প্রথমত টেস্ট সংখ্যা কমানো সত্ত্বেও টেস্ট পজিটিভিটির হার সাই সাই করে বাড়ার বদলে ফ্ল্যাট/প্ল্যাটো হয়ে আছে।

দ্বিতীয়ত বাংলাদেশে গত সপ্তাহে যে হারে ইনফেকশন দেখছি এবং এই ভ্যারিয়েন্ট যেই ছোঁয়াচে ও যে পরিমাণ এসিম্পটোমেটিক সংক্রমণ করে- তাতে আমার ধারণা দেশের অধিকাংশ মানুষের ইতোমধ্যে এই ইনফেকশন হয়ে গিয়েছে। তা যদি হয় তাহলে হার্ড ইমমিউনিটি নতুন সংক্রমণের হার কমিয়ে দেবে। সাউথ আফ্রিকাতে এতোদ্রুত সংক্রমণের হার কমে যাবার কারণ হিসেবে এই হার্ড ইমিউনিটিই কারণ বলে ধারণা করা হয়। সাউথ আফ্রিকাতে একই ভ্যারিয়েন্টের ভাইরাস, একই ধরনের ভ্যাকসিনেশন রেট, এই ধরনের ধিমে তেতালা লকডাউন কার্যকর ছিলো। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত