প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হাসপাতালের বাইরে দাঁড়িয়ে মৃত সন্তানকে ফোন দিচ্ছেন মা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ৬০ বছরের বেশি বয়সী পুনম সোলাঙ্কি। তিনি ভারতের গুজরাটের আহমেদাবাদের বাসিন্দা। সম্প্রতি সেখানকার সিভিল হাসপাতালের বাইরে তাকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। এসময় তার হাতে একটি মোবাইল ফোন ছিল। সেটি দিয়ে নিজের ৩০ বছর বয়সী ছেলে মাহেন্দ্রকে কল দেন তিনি। আরটিভি

কল দিয়ে খুব আদুরে গলায় পুনম তার ছেলেকে জিজ্ঞাসা করে, কেমন আছো তুমি? তারা কি তোমাকে ভালো খাবার দেয়? করোনা থেকে তোমার দ্রুত সুস্থতার জন্য আমি প্রার্থনা করছি। ছেলেকে দ্রুত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে আসার কথা বলে ফোন রেখে দেন তিনি। ছেলের সঙ্গে ৫ মিনিটের বেশি সময় ধরে কথা বলেন পুনম।

করোনা হাসপাতালের বাইরে প্রতিদিনই রোগীদের শত শত আত্মীয়স্বজন জড়ো হয়। প্রথম দেখাতে পুনমকেও তাদেরই একজন মনে হতে পারে। কিন্তু পুনমের ছেলে ছয় মাস আগেই করোনায় মারা গেছে।

পুনমের আত্মীয় টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেন, মাহেন্দ্র গত বছরের ২৪ সেপ্টেম্বর মারা যায়। পুনম আসলে তার ফোন থেকে তার ছেলের সঙ্গে কথা বললেও, সেটা ছিল মাহেন্দ্রের সঙ্গে তার শেষ কথা হওয়া ভিডিও কলের রেকর্ড।

ওই আত্মীয় বলেন, দুধের দোকান ছিল মাহেন্দ্রের। মারা যাওয়ার ৫-৬ দিন আগে তাকে এই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সে তার মায়ের খুবই আদরের ছিল। পুনম জানে যে, তার ছেলে মারা গেছে। কিন্তু কোনও কোনও দিন তিনি নিজেকে আর সামাল দিতে পারেন না। তখন সিভিল হাসপাতালের বাইরে দাঁড়িয়ে ছেলের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন!

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত