প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পানীয় তৈরির আড়ালে যৌন উত্তেজক সিরাপ উৎপাদন

ডেস্ক রিপোর্ট : পাবনায় অভিযান চালিয়ে একটি অবৈধ যৌন উত্তেজক সিরাপ তৈরির কারখানায় অভিযান চালিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ। এ সময় ওই কারখানা মালিককে দুই লাখ টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়াও তাকে ১৫ দিনের সশ্রম কারাদণ্ড ও জরিমানা অনাদায়ে আরও ১৫ দিনের কারাদণ্ড দেয়ার নির্দেশ দেন।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে শহরের কৃঞ্চপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ওই কারখানা থেকে বিপুল পরিমাণ যৌন উত্তেজক সিরাপ, লজেন্স এবং এসব তৈরির উপকরণ জব্দ করা হয়।

পাবনা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আব্দুল হান্নান জানান, শহরের কৃঞ্চপুরে মৃত আক্কাস আলীর ছেলে ইমরুল কায়েস (৪০) দীর্ঘদিন ধরে নিজ বাড়িতে কারখানা স্থাপন করে অবৈধ যৌন উত্তেজক সিরাপ ও লজেন্স তৈরি করছিলেন। এসব অবৈধ যৌন উত্তেজক সিরাপ পাবনা শহরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অবৈধভাবে বাজারজাত করছিলেন। শুধু এই কারাখানা ছাড়াও ইতিমধ্যেই আমরা আরও এমন ধরনের একটি কারখানার খবর পেয়েছি; যারা বিএসটিআইয়ের ফ্রুটস সিরাপের বিডিএস নং নিয়ে যৌন উত্তেজক সিরাপ তৈরি করে আসছেন। শহরের আফুরিয়াতে অবস্থিত ফাস্ট ফিলিংস নামের একটি কারখানা রয়েছে। এসব কারখানাগুলোতে বিশেষ নজরদারির মধ্যে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, বিভিন্ন ধরনের পানীয় তৈরির অনুমোদন নিয়ে কী করে এমন সিরাপ তৈরি করেন বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম। এ সময় পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম এবং সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম আহম্মদ উপস্থিত ছিলেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম বলেন, জেলা পুলিশের উদ্যোগে শহরকে সব ধরনের মাদক, অপরাধ ও সন্ত্রাসমুক্ত করার কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। ভবিষ্যতে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।
সূত্র- সময়.টিভি

সর্বাধিক পঠিত