প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]করোনা রোগীদের জন্য রেমডেসিভিরের মূল্য ৫০ শতাংশ কমালো ভারত

লিহান লিমা: [২] করোনা রোগের চিকিৎসায় ব্যবহৃত ঔষধ রেমডেসিভিরের মূল্য ৫০ শতাংশ কমিয়েছে ভারত। পূর্বমূল্যে কোম্পানিভেদে প্রতি ডোজ রেমডেসিভির ২ হাজার ৮’শ থেকে ৫ হাজার ৪’শ টাকা ছিলো। সরকার নির্ধারিত নতুন মূল্যে এটি এখন ৮৯৯ থেকে ৩ হাজার ৪৯০ টাকায় পাওয়া যাবে।দ্য হিন্দু, হিন্দুস্তান টাইমস, এনডিটিভি

[৩]শুরুর দিকে দেশটিতে এই ঔষধ নিষিদ্ধ করা হলেও পরে জরুরি রোগীদের ক্ষেত্রে ব্যবহারের জন্য এর অনুমোদন দেয় ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। অভ্যন্তরীণ চাহিদা মেটাতে ভারত এই ঔষধের রপ্তানিও বন্ধ করেছে।

[৪]ভারতের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশটিতে রেমডেসিভিরের ৭টি ম্যানুফ্যাকচারার রয়েছে। তারা প্রায় ৩০.৮০ লক্ষ ইউনিট প্রতি মাসে তৈরি করে থাকে। উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

[৫]ভারতে প্রতি ২৪ ঘন্টায় করোনা সংক্রমণ ২ লাখ ৩০ হাজার ছাড়িয়ে যাওয়ার ফলে বহু রাজ্য ওষুধ ও হাসপাতালে বেডের সংকটে ভুগছে। মহারাষ্ট্র কর্নাটক, মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানের রেমডেসিভিরের যোগান শেষ হয়ে গিয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এই পরিস্থিতিতে দেশটিতে এই ঔষধের কালোবাজারি শুরু হয়েছে।

[৬]দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেছেন, তার শহরে দ্রুত শেষ হয়ে যাচ্ছে হাসপাতালের বেড, অক্সিজেন এবং জীবন রক্ষাকারী ওষুধ রেমডেসিভির।

[৭]শনিবার দেশটির মধ্যপ্রদেশের গান্ধী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল থেকে ৮৬০টি রেমডেসিভির চুরির ঘটনা ঘটেছে।

[৮] কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, কালোবাজারি নিয়ন্ত্রণে রেমডেসিভিরের বণ্টন নিজেদের হাতে রেখেছে কেন্দ্র। হাসপাতালগুলোতে বেডের সক্ষমতার ভিত্তিতে রেমডেসিভির সরবরাহ করা হচ্ছে।

 

সর্বাধিক পঠিত