প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ছোট ভাই হিসেবে ক্ষমা চাইবেন খালেদ মাহমুদ সুজন

স্পোর্টস ডেস্ক : গত ফেব্রুয়ারিতে কক্সবাজার স্টেডিয়ামে অপ্রত্যাশিত ঘটনার জন্য জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসানের কাছে ছোট ভাই হিসেবে ক্ষমা চাইবেন বিসিবির পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন।

ওই ঘটনার পর ক্ষমা চাইতে এক আইনজীবীর দেওয়া নোটিশের জবাবে সাবেক অধিনায়ক সুজনের আইনজীবী এমন তথ্য জানিয়েছেন।

ওই ঘটনাকে অপ্রত্যাশিত, অনিচ্ছাকৃত উল্লেখ করে নোটিশের জবাবে বলা হয়, খালেদ মাহমুদ সুজন বিদেশ থেকে ফিরে রকিবুল হাসানের সঙ্গে স্বশরীরে সাক্ষাত করবেন এবং ছোট ভাই হিসেবে ওই ঘটনার জন্য ক্ষমা চাইবেন।

নোটিশ প্রদানকারী আইনজীবী আবু তালেব শনিবার জানান, খালেদ মাহমুদ সুজনের আইনজীবী ব্যারিস্টার মেহেদী হাসান চৌধুরী নোটিশের জবাব পাঠিয়েছেন। কিন্তু যতটুকু জানি খালেদ মাহমুদ সুজন এর মধ্যে দেশে ফিরেছেন। কিন্তু রকিবুল হাসানের সঙ্গে দেখা করেনি। এর মধ্যে তিনি আবার বিদেশে গেছেন।

গত ৭ মার্চ ব্যক্তিগতভাবে সংক্ষুব্ধ হয়ে ওই নোটিশ দিয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আবু তালেব।

ওই নোটিশে সুজনকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়েছিলো, গত ২০ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে লিজেন্ডস চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির খেলা চলাকালে আচমকা আপনি খালেদ মাহমুদ সুজন বীর মুক্তিযোদ্ধা রকিবুল হাসানের দিকে তেড়ে গিয়েছেন। এ সময় আপনি এতই উত্তেজিত ছিলেন যে আপনাকে থামানোর জন্য অনেকে চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন। রাগে অগ্নিশর্মা হয়ে আপনি মাঠের পাশে থাকা স্পনসর প্রতিষ্ঠানের ছাউনি পর্যন্ত উপড়ে ফেলেছেন। আর অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করেছিলেন।

বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে উল্লেখ করে নোটিশে বলা হয়, একজন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে আঘাত করার ফলে সব বীর মুক্তিযোদ্ধাকে এবং সর্বোপরি বাংলাদেশকে আঘাত করার শামিল। বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রকাশিত ও প্রচারিত হওয়ার ফলে নজরে এসেছে। তাই সাংঘাতিকভাবে সংক্ষুব্ধ হয়েছেন বলে নোটিশে উল্লেখ করেন এ আইনজীবী।

এমতাবস্থায় ৭ দিনের মধ্যে প্রকাশ্যে মিডিয়ার সামনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আপনার (সুজন) দ্বারা সংঘটিত অপরাধের জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসানের কাছে ক্ষমা চেয়ে লিখিতভাবে অবহিত করবেন। অন্যথায় আপনার বিরুদ্ধে মোকাদ্দমা দায়ের করা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

ওই নোটিশ দেওয়ার পর ১১ মার্চ জবাব পাঠান সুজনের আইনজীবী। যেটা আইনজীবী আবু তালেব পেয়েছিলেন ১৫ মার্চ। বাংলানিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত