প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিরলে আলোচিত ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় গ্রেফতার ১

এম, এ কুদ্দুস: [২] দিনাজপুরের বিরলে আলোচিত ধর্ষনের চেষ্টার ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মুল হোতা ধরা ছোয়ার বাইরে।স্থানীয় প্রভাব ও আসল ঘটনা আড়াল করতে চলছে নানা কূট কৌশল বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। ঘটনাটি এলাকায় ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

[৩] জানা গেছে, উপজেলার ১১ নং পলাশবাড়ী ইউপি’র পলাশবাড়ী সত্যপীরডাঙ্গীর এক গৃহবধুকে ধর্ষনের চেষ্টার ঘটনায় গৃহবধু নিজে বাদী হয়ে বিরল থানায় সংশ্লিষ্ট ধারায় ৫ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছে। ফলে মামলার প্রেক্ষিতে এজাহারভুক্ত ২নং আসামী মিজানুর রহমানকে গ্রেফতার কওে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। মিজানুর একই ইউপি’র পলাশবাড়ী গ্রামের মোফাজ্জল হোসেনেরে পুত্র। এদিকে এই ধর্ষনের চেষ্টার মামলা ও মিজানুর গ্রেফতার হবার পর এলাকার মানুষ ফুঁসে উঠেছে। অনেকে মনে করছেন, স্থানীয় একটি গ্রুপ প্রভাব খাটিয়ে আসল ঘটনা আড়াল করার চেষ্টা করছে।

[৪] এব্যাপারে একই ইউপি’র পলাশবাড়ী সত্যপীর ডাঙ্গী গ্রামের অনেক মানুষেরমত অভিযোগ করে মৃত শামসুদ্দিনের পুত্র মতিয়ার রহমান (৫৮) জানান, ভিকটিমের সাথে একই ইউপি’র সাকইড় গ্রামের মৃতঃ মোহাম্মদ আলীর পুত্র মাহিদুল ইসলাম (৩০) এর দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে পরকীয়া প্রেমের অবৈধ সম্পর্ক চলে আসছিল। সেই সূত্র ধরে প্রায় ১ মাস ধরে নিখোঁজ ছিল এই গৃহবধু।

[৫] আমি তাদের অবৈধ সম্পর্কে কথা ইতিপূর্বে মাহিদুলের ভাই মহিদুর ও মশিউরকে জানালে আমাকে মামুনের দোকানের সামনে মাহিদুল লাঞ্চিত করে। পলাশবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান ঘটনার বিষয়ে জানান, গত ১৩ এপ্রিল দিবাগত রাত ১ টার দিকে কথিত ধর্ষনের চেষ্টা মামলার আসামীরা মাহিদুলকে ওই গৃহবধুর সাথে না কি আপত্তিকর অবস্থায় ধরে মাহিদুলের নিকট থেকে ৪০ হাজার টাকা উৎকোচ নিয়ে ছেড়ে দেয়। পরেরদিন ওই উৎকোচকৃত টাকার ভাগবাটোয়ারা নিয়ে গোলযোগ সৃষ্টি হলে একটি মহল ওই গৃহবধুকে দিয়ে থানায় কথিত সালিশদারদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টা সংক্রান্ত একটি মামলা দায়ের করান।

[৬] এদিকে ঘটনার মূলহোতা মাহিদুল ইসলামের সাথে বিরল থানা চত্বরে দেখা হলে তিনি জানান, মিজানুরেরা আমাকে আপত্তিজনক অবস্থায় কারো সাথে আটক করেনি। রাস্তায় একা পেয়ে তাঁরা আমাকে আটক করে। পরে ওই গৃহবধূর সাথে আমার অবৈধ সম্পর্কের মিথ্যা অপবাদ দিয়ে মারপিট ও জিম্মিকরে আমার নিকট থেকে নগদ ৭১ হাজার ৫শ’ টাকা ছিনিয়ে নেয়।

[৭] এ ঘটনায় আমি বাদী হয়ে থানায় এজাহার দাখিল করেছি। বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ নাসিম হাবিব জানান, ঘটনার বিষয় থানায় মামলা রুজু হয়েছে। মিজানুর নামে ১ ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। আসল ঘটনা আড়াল করার প্রমাণ পেলে তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। সম্পাদনা: সাদেক আলী

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত