প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ইউএনও’র ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজিতে সাংবাদিক

আশরাফ আহমেদ:[২] কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে সাধারন জনগনকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এবং সহকারী কমিশনার ভূমি (এসিল্যান্ড) এর ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে।জানা যায়, গত বুধবার (১৪ এপ্রিল) উপজেলার আড়াইবাড়ীয়া ইউনিয়নের ধূলজুরী গ্রামের মো. হেলাল উদ্দিন (৪০) তার জমির কাঁঠাল গাছ কাটাতেছিলো।

[৩] এমন সময় প্রেস মানিক (৩৫) ও আশরাফুল ইসলাম সালাম (৩৭) নামে দুই সাংবাদিক গিয়ে হেলাল উদ্দীন কে নানা রকম ভয় ভীতি দেখাতে থাকে। সরকারি রাস্তায় গাছ কাটায় ইউএনও এবং এসিল্যান্ড এসে তার (হেলাল উদ্দিন) নামে মামলা করবে।

[৪] ইউএনও এবং এসিল্যান্ড তাদেরকে এসব গাছ কাটার দেখভালের দায়িত্ব দিয়েছে। কিছু খরচপাতি দিলে তারা সব ম্যানেজ করে নিবে। এ ঘটনায় ভয় পেয়ে গেলেন হেলাল উদ্দিন। মুর্হূতেই সেখানে স্থানীয় জনতা ভীড় করতে থাকে। চাঁদাবাজির বিষয়টি বুজতে পেরে স্থানীয় জনতা তাদের আটক করার চেষ্টা চালায়।পরবর্তীতে নানা রকম কৌশলে তারা ঐ স্থান ত্যাগ করতে বাধ্য হয়।

[৫] ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জনতার হাতে তাদের আটকের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এ ব্যাপারে মো. হেলাল উদ্দিন হোসেনপুর থানা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি অভিযোগ পত্র দায়ের করেছেন।

[৬] হেলাল উদ্দিন জানান, আমি আমার নিজের লাগানো গাছ কাটাইতেছিলাম। বাড়িতে আমি ঘুমাইতেসিলাম৷ তারা বাড়ি গিয়ে আমাকে গাছের কাছে আসতে বলে৷ পরে ইউএনও এবং এসিল্যান্ডের ভয় দেখিয়ে টাকা পয়সা দাবি করে।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাবেয়া পারভেজ জানান, অভিযোগ পত্র হাতে পেয়েছি। ঘটনা সত্য হলে খুবই মর্মান্তিক।তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্তদের ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

[৭] এ ব্যাপারে হোসেনপুর থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল ভিডিয়োটি আমি দেখেছি।তদন্ত্র সাপেক্ষে অভিযু্ক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।এই দুই ভুয়া সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগের যেন শেষ নেই। যেখানেই মামলা সেখানেই হাজির তারা।

[৮] নানা রকম ভয়ভীতি দেখিয়ে দাবি করে মোটা অঙ্কের টাকা। কাউকে ঘর পাইয়ে দেয়ার কথা বলে অর্থ দাবি, কাউকে আবার বয়স্কভাতা,বিধবা ভাতার কথা বলে অর্থ ছিনিয়ে নিতেও পিছপা হন না তারা। অসহায় গরীব মানুষদের হাতের শেষ সম্বলটুকু নিতেও দ্বিধা করে না তারা।  সম্পাদনা:অনন্যা আফরিন

সর্বাধিক পঠিত