প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভাঙ্গায় ইতালি প্রবাসীকে কুপিয়ে হত্যা

ডেস্ক রিপোর্ট: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার ভাঙ্গা পৌরসদরের নওপাড়া বাসস্ট্যান্ডে মঙ্গলবার রাতে এক ইতালি প্রবাসীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। নওপাড়া বাসস্ট্যান্ডে চা খাচ্ছিলো ইতালি প্রবাসী মাসুদ মিয়া। সেসময় তার প্রতিপক্ষ সাবেক পৌর কাউন্সিলর বাচ্চু মেম্বারের লোকজন ঘিরে ফেলে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়।

মাসুদ মিয়া পৌরসদরের গজারিয়া গ্রামের হারুন অর রসিদ মিয়ার ছেলে। সে তার পরিবার ও স্ত্রী নিয়ে ইতালিতেই বসবাস করেন। আগামী ২০ এপ্রিল ইতালি যাওয়ার কথা ছিল তার। তিনি ভাঙ্গা পৌরসভার নির্বাচন উপলক্ষে কয়েকদিন আগেই গ্রামের বাড়িতে একা আসেন। গুরুত্বর আহত মাসুদকে স্থানীয় জনতা তাকে উদ্ধার করে ভাঙ্গা হাসপাতালে নিয়ে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মাসুদের মৃত্যুর সংবাদে গজারিয়া গ্রামসহ নওপাড়া গ্রামে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। খবর পেয়ে ভাঙ্গা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এবং ভাঙ্গা হাসপাতাল থেকে মাসুদের লাশ উদ্ধার করে। উক্ত এলাকায় আধিপত্য নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ রাজ্জাক ফকির ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর বাচ্চু মেম্বারের লোকজনের মধ্যে দ্বন্দ্ব রয়েছে। এনিয়ে উক্ত এলাকায় ইতিপূর্বে একাধিকবার দেশীয় অস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। একই সাথে সংঘর্ষ নিয়ে ভাঙ্গা থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজ্জাক ফকির জানায়, এলাকায় দীর্ঘদিন যাবৎ সাবেক পৌর কাউন্সিলর বাচ্চু মেম্বার ও তার সমমনা লোকজন বড় ধরনের মারামারির পায়তারা করছে। আজ মঙ্গলবার রাত ৮টায় সময় আমাদের সমর্থক ইতালি প্রবাসী মাসুদ নওপাড়া বাসস্ট্যান্ডে চা খাচ্ছিলো। সেসময় বাচ্চু মেম্বারের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মাসুদের ওপর হামলা চালিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

মাসুদ মিয়ার মৃত্যুর সংবাদে এলাকা ও হাসপাতালে শোকের ছায়া নেমে আসে। নির্মমভাবে কুপিয়ে মাসুদকে হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ লুৎফর রহমান জানায়, মারামারির সংবাদ পেয়ে আমাদের পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ইত্তেফাক

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত