প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রমজানে ত্বকের যত্ন

আতাউর অপু: মুসলিম ধর্মালম্বীদের জন্য সবচেয়ে পবিত্র মাস হলো রমজান। ইবাদতের মাস হলো রমজান। রমজানের সময়ে শরীর সুস্থ রাখার পাশাপাশি নিজের দিকেও যত্ন নেওয়া জরুরি। কারণ রমজানে একটা দীর্ঘ সময় পানি না খাওয়ার ফলে স্কিন ডিহাইড্রেট হয়ে যায়। এতে করে পরবর্তীতে ত্বকে নানা ধরণের সমস্যা দেখা দেয়।

সারাদিন রোজা রেখে ফ্লুয়িডের পরিমাণ কমে যায় শরীরে। ফ্যাকাশে হয়ে যায় স্কিন। এজন্য ইফতার খোলার পর থেকেই পানি খেতে হবে। কমপক্ষে ৮ গ্লাস পানি পান করুন সেহেরি পর্যন্ত। সেই সাথে শরবত ও পানি জাতীয় ফল খাওয়ার চেষ্টা করুন। এতে করে আপনার স্কিন হাইড্রেট থাকবে। কোমল পানীয়, অতিরিক্ত চিনি দেওয়া শরবত, ক্যাফেইন খাওয়া বাদ দিন।

প্রসেসড ফুড, স্যাচুরেটেড ফ্যাট খাওয়া বাদ দিন। খেলেও মাঝেমধ্যে অল্প করে খান। ইফতারে ভাজা পোড়া খাওয়ার অভ্যাস বাদ দিতে হবে। খেলেও সপ্তাহে এক বা দুইদিন অল্প করে খাওয়া যেতে পারে। তেলে ভাজা খাবার খেলে স্কিনের ব্রণের সমস্যা দেখা দেয়। সুন্দর প্রাণবন্ত স্কিন পেতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও মিনারেল সমৃদ্ধ খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। ফল, শাকসবজি, মাছ যেগুলোতে ভিটামিন এ,বি,সি ও মিনারেল রয়েছে এমন খাবার রাখুন তালিকায়।

সারাদিন রমজানেই যে  আপনার স্কিনের তেমন ক্ষতি হবে বিষয়টি এমন না, আপনি যদি সবসময় এসির মধ্যে থাকেন বা উচ্চ আদ্রতা সম্পন্ন আবহাওয়ায় থাকেন তাহলে স্কিনে প্যাচ হতে পারে। এজন্য অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে ভুলবেন না। কেমিকেল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার হলে ভালো হয়। ঠোঁটের জন্য ভিটামিন ই সিরাম ও লিপ বাম ব্যবহার করুন।

এ সময়টাতে মেকআপ না করার চেষ্টা করুন। তবে খুব বেশি দরকার হলে মেকআপের পর হালকা ক্লিনজার দিয়ে পরিষ্কারের চেষ্টা করুন। সকালে উঠেই মুখ ক্লিনজিং ও টোনিং করুন। ভিটামিন সিরাম, ময়েশ্চারাইজার, নাইট ক্রিম ব্যবহার করুন। বাইরে গেলে অবশ্যই সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিবেন।

সাবানের পরিবর্তে মুখে ফেসওয়াশ ব্যবহার করুন। কারণ ফেসওয়াশে পিইচের ভালো ব্যালেন্স থাকে যা স্কিনকে বেশি ড্রাই হতে দেয় না। রমজানে চোখের নিচে কালি আর চোখ ফোলা খুব সাধারণ একটি সমস্যা। পর্যাপ্ত ঘুমের বিষয়টি নিশ্চিত করুন। সেই সাথে আই ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত