প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আগামী শনিবার হবে প্রিন্স ফিলিপের শেষ কৃত্য, পরিবারের সব সদস্য অংশ নিলেও করোনা বিধির কারণে থাকবেন না ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ও কমনওয়েলথ নেতারা

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] বাকিংহাম প্রাসাদের মুখপাত্র বলেছেন ডিউকের শেষ কৃত্য হবে তার শেষ ইচ্ছা মেনে। তিনি বলেন, শেষ কৃত্য রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে হবে না। সেটি হবে রাজপরিবারের আনুষ্ঠানিক রীতি অনুযায়ী রাজকীয় অন্ত্যেষ্টি। বিবিসি

[৩] মহামারির নিয়মবিধি মেনে প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্যানুষ্ঠান সীমিত আকারে করা হবে বলে জানানো হয়েছে। রানি এই অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা অনুমোদন করেছেন। ডেইলি মেইল

[৪] উইন্ডসর কাসেলের নিজস্ব চ্যাপেল সেন্ট জর্জেস চ্যাপেলে ডিউক অফ এডিনবারার মরদেহ শাযয়িত রাখা হয়েছে। প্রাসাদ থেকে জানানো হয়েছে, তার কফিন ঢাকা আছে ব্যক্তিগত পরিচিতি বহনকারী কাপড়ে এবং তার ওপর সাজানো রয়েছে পুষ্পস্তবক। মরদেহ জনসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শায়িত রাখা হবে না। দ্য গার্ডিয়ান

[৫] শনিবার তার কফিন উইন্ডসর কাসেলের প্রবেশদ্বার থেকে গাড়িতে তোলা হবে। ডিউক নিজেই এই যাত্রার পরিকল্পনার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। প্রিন্স অফ ওয়েলস, প্রিন্স চালর্স সহ রাজপরিবারের সদস্যরা ডিউক অফ এডিনবারার কফিনের পেছনে পায়ে হেঁটে চ্যাপেলে যাবেন, তবে রানি যাবেন আলাদাভাবে।

[৬] বাকিংহাম রাজপ্রাসাদের পতাকা শুক্রবার থেকেই অর্ধনমিত রাখা হয়েছে। ডিউকের শেষকৃত্য হওয়ার পরদিন সকাল আটটা পর্যন্ত সব সরকারি ভবনগুলোতে পতাকা অর্ধনমিত রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

[৭] ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী আটদিনের রাষ্ট্রীয় শোক পালনের সুপারিশ করেছেন যা রানি অনুমোদন করেছেন বলে বাকিংহাম প্রাসাদ থেকে জানানো হয়েছে। আটদিনের রাষ্ট্রীয় শোক চলবে ১৭ই এপ্রিল ডিউক অফ এডিনবারার শেষ কৃত্য সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত।

 

সর্বাধিক পঠিত