প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মুরগি গোবর নষ্ট করার জেরে টেঁটা মেরে নারীকে হত্যা

ডেস্ক রিপোর্ট: হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার রতনপুর গ্রামে মুরগিতে গরুর গোবর নষ্ট করায় দুই পরিবারের মধ্যে ঝগড়া বাধে। ঝগড়ার এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষের টেঁটার আঘাতে সামছুন্নাহার (৫০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়। বাংলানিউজ২৪

এ ঘটনায় আহত হন জরিনা বেগমও। তারা সম্পর্কে একে অন্যের ননদ-ভাবী।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) এ বিষয়ে একটি হত্যা মামলা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। এর আগে, গত রোববার সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সামছুন্নাহার মারা যান। তিনি বানিয়াচং উপজেলার সুবিদপুর ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের মৃত জহুর আলীর স্ত্রী। আহত জরিনা ওই গ্রামের হাদিস মিয়ার স্ত্রী।

পুলিশ জানায়, সামছুন্নাহার জরিনার বড় ভাইয়ের স্ত্রী। সেই হিসেবে তারা ননদ-ভাবী। গত ২ এপ্রিল জরিনার উঠানে রাখা গরুর গোবর নষ্ট করে সামছুন্নাহারের একটি মুরগি। এনিয়ে প্রথমে দুইজনের মধ্যে ও পরে দুই পরিবারে ঝগড়া হয়। তখন সামছুন্নাহার জরিনার মাথায় দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করেন। এরপর জরিনার ছেলে এসে সামছুন্নাহারের শরীরে টেঁটা দিয়ে আঘাত করলে তিনিও আহত হন।

পরে এলাকাবাসী এগিয়ে গিয়ে আহত দুই নারীকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকে চিকিৎসক তাদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সামছুন্নাহার ৪ এপ্রিল মারা যান। এ ব্যাপারে নিহতের ছেলে বাদী হয়ে বানিয়াচং থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

সুবিদপুর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু মোকসেদ বলেন, সামছুন্নাহার মারা গেছেন এবং হত্যা মামলা দায়েরের খবর পেয়ে জরিনা সিলেটের হাসপাতাল থেকে পালিয়েছেন। এনিয়ে পুলিশ তদন্ত করছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত