প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ২০ ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অভিযান

রাজু চৌধুরী : [২] করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জনগণকে সচেতনতা এবং মাস্ক পরিধানে উদ্বুদ্ধ করাসহ চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক এবং বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ মমিনুর রহমান এর নির্দেশে সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালিত হয়েছে।

[৩] এই সময় ৩৩ টি মামলায় জরিমানা করা হয়েছে ৯,৪৫০ টাকা।

[৪] রোববার ৪ এপ্রিল নাজমা বিনতে আমিন, ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, চট্টগ্রাম কর্তৃক নগরীর কর্ণফুলী ব্রীজ এলাকায় কোভিড-১৯ এর সাম্প্রতিক ঊর্ধ্বগতি বিবেচনায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এসময় বিভিন্ন শ্রেনী ও পেশার মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ব্যাপারে নির্দেশনা প্রদান করা হয় এবং জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৭০টি মাস্ক বিতরণ করা হয়। কোনো মামলা হয়নি।

[৫] নগরীর বায়জিদ এলাকা, বায়জিদ বোস্তামি মাজার এলাকা, সেনানিবাসের গেইট মার্কেট, শের শাহ বাজার এলাকায় কোভিড-১৯ এর সচেতনতা তৈরিতে প্রচারণা ও মাস্ক বিতরণ করা হয়।

[৬] এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সোহেল রানা কর্তৃক বহাদ্দারহাট এলাকায় করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর সংক্রমণ রোধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এ সময় স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক পরিধানের ব্যাপারে জনসাধারণকে সচেতন করা হয়। গণপরিবহনের চালক ও যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে সতর্ক করা হয়। এছাড়াও একশত মাস্ক বিতরণ করা হয়।

[৭] মাস্ক পরিধান না করায় ও অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনের জন্য ০৩ ব্যক্তি ও ০৮ যানবাহন চালক, মোট ১১ জনকে মোট ২১০০/- (দুই হাজার একাশত টাকা) অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়।

[৮] কাটগড় বাজার, পতেঙ্গা বীচ, ইপিজেড কার্যক্রম: স্বাস্থবিধি পরিপালনের নিমিত্ত সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক প্রচারণা, ও মাস্ক বিতরণ।

[৯] আইনী কার্যক্রম: কোনোরুপ দন্ড আরোপ করা হয়নি। এখানে অভিযান পরিচালনা করেন এহসান মুরাদ,এসিল্যান্ড, পতেঙ্গা সার্কেল।

[১০] বন্দর এলাকায় ৫০ টি মাস্ক বিতরণ করা হয়। ১ টি মামলায় ৫০০টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, মাসুমা জান্নাত নগরীর মেহেদীবাগ এলাকায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলায় ২ মামলায় ২ জনকে ৬০০ টাকা অর্থদন্ড দেওয়া হয়। ৫০টি মাস্ক বিতরণ করা হয়।

[১১] এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জিল্লুর রহমান নগরীর ২ নং গেইটের কর্ণফুলী মার্কেটের ভিতর এবং এর সংলগ্ন রাস্তায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। এই সময় ৫০টি মাস্ক বিতরণ করা হয়। অভিযানে কোনরুপ দণ্ড প্রদান করা হয়নি।

[১২] এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী কর্তৃক নগরীর কাজির দেউড়ী সংলগ্ন এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। অভিযানে মাস্ক পরিধান না করায় তিনজন ব্যক্তিকে মোট ৫০০/- (পাঁচশত টাকা) অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। দুইজন বাসচালককে অতিরিক্ত যাত্রী বহন করায় মোট ২০০০/- (দুই হাজার টাকা) অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়।

[১৩] ফাহমিদা আফরোজ এ কে খান এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ১ জন কে ২০০ টাকা জরিমানা করা হয়।জনগণ দের সচেতন করা হয় ও ১০০ টি মাস্ক বিতরন করা হয়। এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, সোনিয়া হক, দেওয়ানহাট এলাকায় বিপণি বিতান এবং গণপরিবহনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। পঞ্চাশটি মাস্ক বিতরণ করা হয়। কোনো অর্থদণ্ড করা হয়নি।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত