প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] লকডাউনে হাসপাতালে ভিড় না করার নির্দেশ: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

শাহীন খন্দকার: [২] করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দ্রুতগতিতে বাড়তে থাকায় আগামী সোমবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য সারাদেশে লকডাউন ঘোষণা করছে সরকার। এ অবস্থায় জটিল কোনো রোগ ও জরুরি প্রয়োজন ছাড়া হাসপাতালে রোগীর আত্বীয়স্বজনদের এসে ভিড় না জমানোর আহ্বান জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

[৩] শনিবার অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) ডা. ফরিদ হোসেন মিঞা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘সামান্য সর্দি-জ্বর আর অন্য সাধারণ রোগ নিয়ে রোগীদের হাসপাতালে এসে ভিড় না করার আহ্বান জানাচ্ছি। এই সময়ে তারা যেন ফোনেই চিকিৎসা সেবা নেন।

[৪] তিনি আরও বলেন, তবে যারা ইমার্জেন্সি রোগী, তারা আসবেন। তাদের ঠেকিয়ে রাখা যাবে না। বিশেষ করে করোনা রোগীরা যাদের ভর্তি লাগবে তাদের আসবেন। তাদের ঘরে বসে থাকা যাবে না। পরিচালক বলেন, সার্বক্ষণিক টেলিমেডিসিন সেবা চালু থাকবে, ‘আমাদের স্বাস্থ্য বাতায়ন চালু আছে। সব হাসপাতালগুলোতেই টেলিমেডিসিন সেবা চালু আছে। এই সময়ে জরুরী না হলে হাসপাতালে না আসাই ভালো।

[৪] ডা.ফরিদ মিঞা বলেন, ‘লকডাউন দেওয়াতে বরং ইমার্জেন্সি রোগীদের জন্য সুবিধা হবে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের জন্যও সুবিধা হবে। কারণ রোগীদের সঙ্গে যে অতিরিক্ত স্বজনেরা উপস্থিতি থাকে, তা কম আসবে। এতে আমাদের চিকিৎসক-নার্সদের সেবা কার্যক্রমে সুবিধা হবে।

[৫] লকডাউনে হাসপাতালের সেবা কার্যক্রমে কোনো প্রভাব পড়বে কি না জানতে চাইলে তিনি আরও বলেন, ‘লকডাউন ঘোষণা মূলত সাধারণ মানুষের চলাফেরা নিয়ন্ত্রণের জন্য। তারা যেন অযথাই বাইরে ঘুরে না বেড়ায়, সেটা বন্ধ করার জন্য। এতে হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম আগের মতোই চলবে।

সর্বাধিক পঠিত