প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সাকিব,তামিম ও মুশফিকের বিকল্প নেই দলে, এতো বছর কী করলো বিসিবি

স্পোর্টস ডেস্ক: [২] সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম ছাড়া দলের এই ভরাডুবি দেশের পাইপলাইনে বিকল্প ক্রিকেটারের ঘাটতিকেই নির্দেশ করে। শুধু মাঠেই নয়। মাঠের বাইরেও এলোমেলো বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। সঠিক পরিকল্পনার অভাব স্পট। মাঠের বাইরে টিম ম্যানেজমেন্টের সমালোচনা করেছেন সাবেক ক্রিকেটার সানোয়ার হোসেন। সামর্থ্যে ঘাটতি নেই লিটন-সৌম্যদের। তবুও ধারাবাহিক ভাবে ব্যর্থতায় ক্রিকেটারদের টেকনিকে ঘাটতি আছে বলে মনে করেন তিনি।

[৩] ফরম্যাট পরিবর্তন হয়। কিন্তু বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ফলাফল অপরিবর্তিত। ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশের পর টি-টোয়েন্টিতেও হার দিয়ে যাত্রা শুরু মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দলের। স্বাভাবিক ভাবেই ম্যাচ শেষে ময়না তদন্ত হচ্ছে। সমস্যা কি সামর্থ্যে নাকি পরিকল্পনায়?

[৪] ভারতের ইশান কিশান, নিউজিল্যান্ডের কনওয়েরা অভিষেকেই জ্বলে ওঠে। নবীনদের পারফরম্যান্স দেখে কাকে রেখে কাকে বাদ দিবে তা নিয়েই দ্বিধা-দ্বন্দ্বে পরে যায় ওদের দেশের টিম-ম্যানেজম্যান্ট। আর বাংলাদেশের অবস্থাটাই দেখুন। দলের তিন কাণ্ডারি সাকিব-তামিম ও মুশফিককে ছাড়া কিভাবে খাবি খাচ্ছে দল। তাদের বিকল্পই খুঁজে পাচ্ছে না টিম ম্যানেজম্যান্ট। তরুণ পেসার শরীফুলকে বেদম পিটিয়েছে কিউই ব্যাটসম্যানরা। ব্যর্থতার দায় শুধু ক্রিকেটারদের উপর চাপালেই হবে না, পরিকল্পনায় ঘাটতির দায় এড়াতে পারে না টিম ম্যানেজম্যান্টও।

[৫] সানোয়ার হোসেন বলেন, সাকিব-তামিম ছাড়া খেলার অভ্যাস করতে হবে। আমাদের পাইপলাইনে ভালো কোয়ালিটির খেলোয়াড় আমরা এখনও পাচ্ছি না।

[৬] লিটন-সৌম্য ধারাবাহিক ভাবে ব্যর্থ। কিন্তু লাল সবুজ জার্সি গায়ে জড়িয়ে তারা তো বহু ম্যাচ বাংলাদেশকে জিতিয়েছেন। তাহলে সামর্থ্যরে প্রশ্ন থাকছে না। ঘাটতিটা ভিন্ন কন্ডিশনে টেকনিকে। তা শেখানো যাদের দায়িত্ব, সেই কোচরাও কি ব্যর্থতার অংশ না? সে গুলো নিয়ে কাজ করা জরুরি বলে মনে করেন এই সাবেক ক্রিকেটার।

[৭] সানোয়ার হোসেন আরও বলেন, আমাদের অনেক দুর্বলতা আছে। এটা আমাদের মানতে হবে। দেশের বাইরে ধারাবাহিক ব্যর্থতায় ক্রিকেটারদের জবাবদিহিতার মধ্যে আনাও প্রয়োজন বলে মনে করেন সাবেকরা। – সময়টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত