প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মুনশি জাকির হোসেন: জামায়াত-শিবির-হেফাজত ফ্যাসিবাদের আতুর ঘর

মুনশি জাকির হোসেন: আওয়ামী লীগ এখনও ঘুরে দাঁড়াতে সক্ষম। কিন্তু এভাবে আর কিছুদিন চললে পরবর্তী সময়ে শত সহস্র চেষ্টা করলেও সেটি সম্ভব হবে না। যতো দ্রুত সম্ভব দলের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে ওবায়দুল কাদের সাহেবকে সরানো উচিত, যতো দেরি ততোই বিপদ। ছাত্রলীগের চলমান কাঠামো দিয়ে নেতৃত্ব তৈরি সম্ভব না, এখানে মেধা, আদর্শীক চর্চা, যোগ্যতা, সিন্ডিকেট মুক্ত, সাংগঠনিক চর্চার মধ্যদিয়ে নেতৃত্ব নির্বাচনই বাঁচার শেষ ওপায়।

অর্থনৈতিক উন্নয়ন কম, সাংগঠনিক কাঠামো শক্তিশালী করা বেশি জরুরি। পাইপলাইনে যতো প্রকল্প আছে সেগুলোর বাস্তবায়ন হলেই দেশের অর্থনীতির চলমান গতি অপরিবর্তিত থাকবে। দুর্নীতি কমানো গেলে সূচকে আরও বেশি পরিবর্তন আসবে। সুতারাং কম অর্থনৈতিক প্রকল্প, বেশি জবাবদিহিতা প্রয়োজন এবং সাংগঠনিক কাঠামোর সংস্কারের দিকে বেশি ফোকাস করা। কোনো সংস্কার ছাড়াই যদি আওয়ামী লীগ আর কিছু দিন চলে তাহলে এই দলের অবস্থা ভারতের কংগ্রেস, পশ্চিমবঙ্গের বামেদের থেকেও খারাপ হবে এবং সেটিই অনিবার্য পরিণতি হবে।

[২] ফ্যাসিজম বা ফ্যাসিবাদকে যেকোনো মূল্যে নির্মূল করা একটি জনপদের জন্য অনিবার্য কর্তব্য। জামায়াত-শিবির-হেফাজত ফ্যাসিবাদের আতুর ঘর। গণতন্ত্র, মানবাধিকার, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা তাদের জন্য নয়! তারা চূড়ান্ত রাষ্ট্রক্ষমতা পেলে জনমানুষের জীবন কেয়ামত সমতুল্য করে তুলবে। বৃহত্তর স্বার্থেই তাদের নির্মূল জরুরি। এই সকল হায়েনার দল গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের, আধুনিক রাষ্ট্রের সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ করলেও দিন শেষে সেই রাষ্ট্রের ধ্বংস কামনা করে। চিকিৎসা বিজ্ঞানের সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ দিন শেষে বলে, তারা নাস্তিক, তারা দোযখে যাবে। তারা নিমকহারামের এক নিকৃষ্ট উদহারণ। যে, যারা এই সকল হায়েনাদের পক্ষে ইনিয়ে-বিনিয়ে জোয়াল টানে তাদের ঘরে বিঁষধর সাপ ছেড়ে দিয়ে বলা উচিত, জীব হত্যা মহাপাপ। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত