শিরোনাম
◈ রায়পুরায় দূর্বৃত্তদের গুলিতে মির্জাচর ইউপি চেয়ারম্যান নিহত  ◈ আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক নয়, লুটেরা দলে পরিণত হয়েছে: মির্জা ফখরুল ◈ নেতাকর্মীরা সোহরাওয়ার্দী উদ্যান নিরাপদ মনে করছেন না: রিজভী ◈ মৌলিক গবেষণায় বিশ্ব হার্ট ফেডারেশনের সহযোগিতা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী ◈ ২২ কোটি টাকার ইনজেকশন পাওয়া রাইয়ান এখন অনেকটা সুস্থ  ◈ হুমকি, ধামকি দিয়ে সরকারের পতন ঘটানো যাবে না: কাদের ◈ ঢাবিতে গাড়িচাপায় নারীর মৃত্যু, পরিবারের মামলা ◈ প্রধানমন্ত্রীর জনসভাকে ঘিরে উৎসবমুখর চট্টগ্রাম ◈ ভয়াবহ বন্যা ও ভূমিধসে বিপর্যস্ত ব্রাজিল ◈ নয়াপল্টনের সমাবেশে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে সরকারকে: আমান

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ, ২০২১, ০৪:৪০ সকাল
আপডেট : ২৯ মার্চ, ২০২১, ০৪:৪৫ সকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

মেডিকেলে ভর্তি: প্রশ্নফাঁসের গুজব ছড়ালে ডিজিটাল আইনে মামলা

নিউজ ডেস্ক: এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা ঘিরে প্রশ্নফাঁসের গুজব ছড়ালে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর। রাজধানীসহ সারাদেশে কেন্দ্রীয়ভাবে আগামী ২ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া পরীক্ষায় এ প্রতারক চক্র থেকে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সাবধান থাকারও অনুরোধ জানিয়েছে অধিদপ্তর।

এ বিষয়ে গত ২৪ মার্চ স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. এ কে এম আহসান হাবিব স্বাক্ষরিত একটি সতর্ক বার্তাও জারি করা হয়েছে।

সতর্ক বার্তায় বলা হয়, প্রতিবছর এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষাকে সামনে রেখে কিছু কুচক্রী মহল, দুর্নীতিবাজ ব্যক্তি বা গ্রম্নপ কোচিং সেন্টারের নামে বা ব্যক্তিগতভাবে অনলাইনের বিভিন্ন মাধ্যম (ফেসবুক, মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইবার ও ইমো) মাধ্যমে শতভাগ কমন সাজেশন- বলে গোপনে বড় অঙ্কের টাকা দাবি করে থাকে। মেধাবী শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এভাবে অর্থ হাতিয়ে নেয় প্রতারক চক্র।

সতর্ক বার্তায় আরও বলা হয়, মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষা সবসময়ই সর্বোচ্চ স্বচ্ছতার সঙ্গে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। ইতোমধ্যেই সব মেডিকেল কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের নির্দেশনায় ওভারসাইট কমিটি গঠন করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর অত্যন্ত দৃঢ়তার সঙ্গে জানাতে চায় যে, সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা গ্রহণের কার্যক্রম এগিয়ে চলেছে। ইতোমধ্যেই সকল আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে জনস্বার্থ পরিপন্থি অনৈতিক কর্মকান্ড রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ছড়ালে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের আওতায় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কেউ গুজব ছড়ালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর/স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের কন্ট্রোল রুম- টেলিফোন ০২২২২২৮৫৯৩৩, ০২২২২২৯৭২৫৩ এবং মোবাইল নাম্বার ০১৭৫৯১১৪৪৮৮ নম্বরে এবং আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে জানানোর অনুরোধ জানানো হয়। একইসঙ্গে প্রতারণার জালে পা না দিয়ে পড়াশোনায় মনোনিবেশ করে পরীক্ষায় নিজ যোগ্যতা প্রদর্শনের জন্য ছাত্র-ছাত্রীদের উপদেশ দেওয়া যাচ্ছে।

মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষার ইতিহাসে এ বছর রেকর্ডসংখ্যক এক লাখ ৮২ হাজার ৮৭৪ জন অংশগ্রহণ করছে। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ৭২ হাজারের কিছু বেশি। - যায়যায়দিন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়