প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মাদক নিয়ে বিরোধ, বাড়িতে ঢুকে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

সাদেক আলী: কুমিল্লায় মাদক ব্যবসা নিয়ে বিরোধের জেরে বাড়িতে ঢুকে নাদিম নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় তার মা-ভাই ও স্ত্রীকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়।

শুক্রবার (২৬ মার্চ) জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার সীমান্তবর্তী ভাটপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত নাদিমের বিরুদ্ধে হত্যা, অস্ত্র ও মাদকসহ বিভিন্ন অভিযোগে ২৪টি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। সে ওই গ্রামের ইদু মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় আবদুল মান্নান নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ভাটপাড়া গ্রামের নুরুল হকের ছেলে ফারুক ও তার স্ত্রী সাজনী বেগম সম্প্রতি মাদক নিয়ে আটক হওয়ার পর জেলে যান। তাদের আটক ও জেলে থাকার বিষয়ে প্রতিবেশী নাদিমকে সন্দেহ করে আসছিল তারা। গত বুধবার পুলিশ ফের নুরুল হকের বাড়িতে মাদক উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করে। এ ঘটনায় ফারুক ও তার সহযোগীরা সন্দেহ করে নাদিমকে বেধড়ক মারধর করে। পরে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

চিকিৎসা শেষে শুক্রবার (২৭ মার্চ) নাদিম বাড়িতে গিয়ে নিজ রুমে বিশ্রাম নেয়। এ সময় প্রতিপক্ষের লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে তার বাড়িতে ঢুকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এ সময় তাকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসলে তার মা রহিমা বেগম, স্ত্রী আমেনা আক্তার ও ভাই মহসিনকেও মারধরসহ কুপিয়ে আহত করা হয় এবং বাড়িঘর ভাংচুর করে। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক নাদিমকে (৩১) মৃত ঘোষণা করেন।

সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি দেবাশীষ চৌধুরী জানান, নিহত নাদিমের মরদেহ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় আব্দুল মান্নান প্রকাশ মনা নামে একজন আটক করা হয়েছে এবং ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্যদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। সময়টিভি

সর্বাধিক পঠিত