প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]জোড়া খুনের মামলায় ২ জনের ফাঁসি, ১৩ জনের যাবজ্জীবন

রাজু আহমেদ: [২] গুলি করে দুই ব্যক্তিকে হত্যা মামলায় সুনামগঞ্জে দু’জনকে মৃত্যু দন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই মামলায় আরো ১৩ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়।

[৩] বৃহস্পতিবার দুপুরে সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত দায়রাজজ নুরুল আলম মোহাম্মদ নিপু এ আদেশ দেন। দন্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের বাড়ি জেলার তাহিরপুর উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের কামদেবপুর গ্রামে।

[৪] সুনামগঞ্জ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অ্যাডভোকেট শামছুন নাহার বেগম শাহানা রব্বানী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

[৫] মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, আব্দুল হান্নান ওরফে যাত্রা মিয়া ও শামসুদ্দিন ওরফে শামছু মিয়া।

[৬] যাবজ্জীবন দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, আব্দুল মান্নান, ইনু মিয়া, রেনু মিয়া, হামদু মিয়া, আফজল মিয়া, জালাল উদ্দিন, আব্দুল নুর, সবুজ মিয়া, বাবুল মিয়া, আলকাছ মিয়া, বাদল মিয়া, রহমত আলী ও মনু মিয়া।

[৭] মামলা সূত্রে জানা গেছে, কামদেবপুর গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’পক্ষের বিরোধ ছিল। এর জেরে ২০০০ সালের ১৮ মার্চ একপক্ষের লোকজনের হাতে অন্যপক্ষের একজন মারধরের শিকার হন। পরদিন সকালে এ নিয়ে গ্রাম্য শালিস হওয়ার কথা ছিল। শালিসে যাওয়ার পথে প্রতিপক্ষের লোকজনের গুলিতে আরফান আলী ও মতিউর রহমান নামে দুই ব্যক্তি গুরুতর আহত হন। পরে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর ওই দু’জন মারা যান।

[৮] এ ঘটনায় নিহতের স্বজন আতাউর রহমান বাদি হয়ে ২৮জনকে আসামি করে ওই দিনই তাহিরপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

[৯] তদন্তশেষে পুলিশ ২০০১ সালের ৩১ মার্চ ৩৭ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়। মামলা বিচারাধীন থাকা অবস্থায় ৯জন আসামির মৃত্যু হয়। সম্পাদনা: সাদেক আলী

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত