প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জীবননগর সেনেরহুদায় শিশু কন্যাকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে পিতা গ্রেপ্তার

জামাল হোসেন খোকন: [২] চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার সেনেরহুদায় স্ত্রীর আগের পক্ষের শিশু কন্যাকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে সৎ পিতাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছেন। ঘটনাটি বুধবার সকালে সংঘটিত হয়েছে।

[৩] জীবননগর উপজেলার উথলী ইউনিয়নের সেনেরহুদা গ্রামের আমিরুল হক বলেন,আমার মেয়ে তানিয়াকে(২৪) আমার একই গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে মিলন হোসেনের সাথে বিয়ে হয়েছিল। সেখানে কন্যার দাম্পত্য জীবনে দুই বছর বয়সের জান্নাতি নামের এক সন্তান রয়েছে। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস তার সন্তানের বয়স পাঁচ মাসের মাথায় মিলন আমার মেয়েকে তালাক দেয়। দীর্ঘদিন মেয়েকে আমার বাড়ীতে রেখে দিই। এক পর্যায়ে গত ৬-৭ বছর আগে মেয়ে তানিয়াকে দর্শনার ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম বাবলুর ছেলে উজ্জল হোসেন মিঠুনের(৩০) সাথে বিয়ে দিই।

[৪] কিন্তু আমার নাতনি জান্নাতিকে আমার বাড়ীতেই রেখে দিই। সম্প্রতি আমার মেয়ে আমার বাড়ীতে আসে। আমার মেয়ে আমার বাড়ীতে অবস্থান করা কালে গত সোমবার জামাই মিঠুন আমার বাড়ীতে আসে। মিঠুন আমার বাড়ীতে থাকা কালে বুধবার সকাল আটটার দিকে ঘরের ভিতরে আমার নাতনি জান্নাতিকে হত্যার উদ্দেশ্যে বেøড দিয়ে গলায় পোঁট মারতে গিয়ে বাম চোয়ালে লেগে রক্তাক্ত জখম হয়। আমার নাতনির ডাক চিৎকারে ঘরের ভিতরে গিয়ে দেখি রক্তাক্ত জখম অবস্থায় দেখে হতবাক হয়ে হই। ঘটনা প্রতিবেশীরা দেখে মিঠুনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

[৫] গৃহবধু তানিয়া বলেন,আমার মেয়ে জান্নাতি আমার পিতামাতার বাড়ীতে থাকলেও মিঠুন মানসিক ভাবে তাকে মেনে নিতে না পেরে হত্যার চেষ্টা করে। আমি তার দৃষ্টান্তুমুলক শাস্তির দাবী করছি।

[৬] জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম বলেন,ঘটনার ব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত মিঠুনকে বৃহস্প্রতিবার সকালে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত