প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য শিগগিরই প্রতি জেলায় একজন মনোবিজ্ঞানী নিয়োগ দেওয়া হবে: শিক্ষামন্ত্রী

শরীফ শাওন: [২] ড. দীপু মনি বলেন, প্রাথমিকভাবে তারা যেন প্রতি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে দুজন শিক্ষককে কাউন্সিলিং প্রশিক্ষণ দিতে পারে এ লক্ষ্যে কাজ করা হচ্ছে। আশা করছি দ্রুতই দুই লাখ শিক্ষককে এ প্রশিক্ষণ দিতে পারবো। যেন শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের যে কোনও সমস্যা সমাধান করতে পারেন।

[৩] শনিবার ‘মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’ আয়োজিত ওয়েবিনারে যুক্ত হয়ে তিনি বলেন, ২০১৯ সালে এ উদ্যোগ নিলেও করোনার কারণে কার্যক্রম পিছিয়ে পড়েছিলো।

[৪] শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কিশোর বয়সটি বেয়াড়া, অস্বস্তির সময়। প্রজনন স্বাস্থ্যের বিষয়ে জ্ঞান না থাকায় শিক্ষার্থীদের ভয়, অস্বস্তি ও দ্বিধা-দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। ফলে তাদের মানসিক সমস্যা হতে পারে।কিশোর-কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্যের বিষয়ে বইয়ে চ্যাপ্টার থাকলেও শিক্ষকরা তা পড়ান না।

[৫] তিনি বলেন, কিশোর-কিশোরীরা যেন স্বাভাবিকভাবে বেড়ে উঠতে পারে, সেই ব্যবস্থা করতে হবে। এ বিষয়ে সরকার এবং সামাজিক সংগঠনগুলোর উদ্যোগ রয়েছে, তবে এটি সময়সাপেক্ষ বিষয়।

[৬] দীপু মনি বলেন, শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের সময় কিশোর-কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্যের বিষয়গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। হয়তো সামাজিক কারণে তারা বিষয়গুলো পাঠদানে আগ্রহী হন না। এটি মূলত সচেতনতা, শুধু কিশোর-কিশোরী নয় বরং সকলের জন্য এ সচেতনাতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এই জায়গা থেকে আমরা পিছিয়ে আছি।

 

সর্বাধিক পঠিত