প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিএলআরআই-এর নতুন ডিজি ড. মোঃ আবদুল জলিল

মাসুদা ইয়াসমিন:[২] বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটে নতুন মহাপরিচালক হিসেবে যোগ দিয়েছেন ড. মোঃ আবদুল জলিল। বৃহস্পতিবার বিকেল বিএলআরআই এর সম্মেলন কক্ষে সাবেক ডিজি ড. নাথু রাম সরকারের বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নতুন ডিজি হিসেবে ড. মোঃ আবদুল জলিলকে বরন করে নেয়া হয়। তিনি বিএলআরআই এর প্রাণী উৎপাদন গবেষণা বিভাগের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও বিভাগীয় প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

[৩] আবদুল জলিল বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৮৫ সালে এনিমেল হাজবেন্ড্রীতে স্নাতক এর পর একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৮৬ সালে এনিমেল ব্রিডিং এ এমএসসি সম্পন্ন করে। ১৯৯১ সালের ১ আগষ্ট কর্মজীবন শুরু করেন এর পর ২০১৫ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন।

[৪] বিদায়ী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শাহ্ মোঃ ইমদাদুল হক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ড. অমিতাভ চক্রবর্ত্তী ও বিএলআরআই এর বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, প্রকল্প পরিচালকসহ বিজ্ঞানী কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

[৫] অনুষ্ঠানে মহাপরিচালক ড. মোঃ আবদুল জলিল বলেন, “আজকের এই আয়োজন বিদায় অনুষ্ঠান নয়, আনুষ্ঠানিকতা মাত্র। ড. নাথু রাম সরকার অত্যন্ত সফলতার সাথে তাঁর দীর্ঘ ত্রিশ বছরের কর্মজীবন অতিবাহিত করেছেন। ডিজি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে অল্প সময়ের মধ্যে তিনি ৪১ জন কর্মকর্তার পদোন্নতির ব্যবস্থা করে গেছেন।

[৬] যা ইতোপূর্বে আর কেউ দিতে পারেননি। তিনি একজন ভদ্র, উদার ও বড় মন-মানসিকতার মানুষ। মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিই প্রমাণ করে জাতীয় ক্ষেত্রে তাঁর অবদান কতটুকু।” একই সাথে তিনি কৃষিবিদদের অবদানের যথার্থ স্বীকৃতি প্রদান করায় বর্তমান সরকার এবং প্রবিধান-পদোন্নতি বিভিন্ন বিষয়ে সহযোগিতা করার জন্য মন্ত্রণালয়কে ও মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদেরকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। পাশাপাশি তিনি তাঁর দায়িত্ব পালনকালে বিএলআরআই এর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য পেনশন চালু করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন। সম্পাদনা:অনন্যা আফরিন

 

সর্বাধিক পঠিত