প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শাপলা মিডিয়া পরিকল্পিত প্রথম ১০টি ছবির বেশির ভাগ করছেন বিপাশা ও আইরিন

ইমরুল শাহেদ: চলচ্চিত্রের উন্নতি হয়েছে, নাকি অবনতি হয়েছে, তা নিয়ে ভাবনায় আছেন চলচ্চিত্রের মানুষজন। বিশেষ করে যখন খবর পাওয়া যায় যে, আট দিনে একটি ছবি শেষ। কিন্তু আটদিনে কি শেষ হয়েছে? খবর চাউর হয়েছে, শাপলা মিডিয়া ইন্টারন্যাশনাল পরিকল্পিত একশ’ ছবির একটি - ‘পরাণে পরাণ বান্ধিয়া’ আটদিনে শেষ হয়েছে। স্বভাবতই এটা কোন ধরনের ছবি, কি ছবি, এদিয়ে চলচ্চিত্রশিল্পের আদৌ কোনো লাভ হবে কিনা ইত্যাদি।

এছাড়া আরো সাতটি ছবির শুটিং চলছে। হঠাৎ করেই শোনা যাবে অমুক ছবির কাজ দশ দিনে শেষ হয়ে গেছে। এসব ছবির বেশির ভাগেই এখন কাজ করছেন আইটেমগার্ল হিসেবে পরিচিতি পাওয়া বিপাশা কবীর ও মডেল অভিনেত্রী আইরিন সুলতানা। এই দুজন অদল-বদল করেই ছবিগুলো করছেন। জানা গেছে, চৈত্র দুপুর, পরাণে পরাণ বান্ধিয়া, জেদী মেয়ে ছবিতে রয়েছেন বিপাশা কবীর।

এছাড়া চৈত্র দুপুর, হৃদ মাজারে তুমি এবং আরো একটি ছবিতে রয়েছেন আইরিন। আচল, সেলিনা আফ্রি, শাকিলা পারভীন, তানহা মৌমাছি, এ্যানি, ফারিন এবং প্রকৃতি করছেন একটি করে ছবি। পরের দশ ছবিতে কারা থাকবেন সেটা এখনও বলা হচ্ছে না। প্রশ্ন হলো বিপাশা কবীর এবং আইরিন - দু’জন ভিন্ন ভিন্ন বৈশিষ্ট্যে ভাস্বর। একজনের ঝোক বেশি নাচের দিকে, আরেক জনের অভিনয়ের দিকে। তারা দু’জনে পরিকল্পিত এসব ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রেই অভিনয় করছেন বলে শোনা যাচ্ছে। এর আগেও একক নায়িকা হিসেবে তাদের ছবি মুক্তি পেয়েছে। কিন্তু তাদের কোনো সাফল্য তেমন একটা চোখে পড়ার মতো নয়।

খাস জমিন ছবির পরিচালক অন্য ছবি শুরু করলেও বিপাশা-সাইমনকে নেননি। আইরিনকেও পুনরাবৃত্তি হতে তেমন একটা দেখা যায় না। এর মানে এই অভিনেত্রীদ্বয়ের বাণিজ্যিক আবেদন তেমন একটা তৈরি হয়নি। এখন তারা যেসব সুযোগ পাচ্ছেন, মাধ্যম এ্যাপস হলেও, তা কাজে লাগাতে পারলে বাণিজ্যিক ছবিতে তাদের একটা কিছু হতে পারে। সাঞ্জু জন জানালেন, তার ১২টি ছবি মুক্তি পেয়েছে। সেলিনা আফ্রি অভিনীত নাকি চারটি ছবি আছে। তাতে তারা কেন পরিচয়ের পরিধি বাড়াতে পারলেন না?

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত