প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভালুকায় সন্তানকে বাঁচাতে গিয়ে মা সহ নিতহ-৩

আবুল বাশার শেখ: ময়মনসিংহের ভালুকার ধীতপুর ইউনিয়নের বহুলী এলাকায় প্রভিটা গ্রুপের সেপটিক ট্যাংকে পড়ে যাওয়া তিন বছরের শিশুকে বাঁচাতে গিয়ে শিশুর মা ও এক শ্রমিকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (৩মার্চ) বিকেলে। নিহতরা হলেন রুহিত বাউচি (৩), তার মা শ্রীমতি রুলী (৩০) এবং প্রভিটা গ্রুপের শ্রমিক হৃদয় হাসান (২২)।

ত্রিশাল ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মনিম সারোয়ার জানান, নিহত রুহিতের বাবা সজল বাউচি প্রভিটা গ্রুপের একজন ইঞ্জিনিয়ার। তারা আবাসিক কোয়ার্টারে থাকতেন। বিকেলে রুহিত খেলা করার সময় প্রভিটা গ্রুপের সেপটিক ট্যাংকের কাগজ দিয়ে ঢাকা ভাঙ্গা ঢাকনা দিয়ে ভেতরে পরে যায়। তাকে বাঁচাতে গিয়ে তার মা শ্রীমতি রুলী সেপটিক ট্যাংকে ঝাপ দেয়। এ সময় তাদের বাঁচাতে গিয়ে হৃদয় ঝাপ দিলে কেউ আর উঠতে পারেনি। পরে ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে প্রায় ৩ঘন্টা ময়মনসিংহ ডুবুরি ইউনিটের সহযোগীতায় নিহত ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পরে নিহতদের লাশ ভালুকা মডেল থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ভালুকা মডেল থানার এস আই আতোয়ার জানান, বিকেলে রুহিত খেলা করার সময় প্রভিটা গ্রুপের সেপটিক ট্যাংকের কাগজ দিয়ে ঢাকা ভাঙ্গা ঢাকনা দিয়ে ভেতরে পরে যায়। তাকে বাঁচাতে গিয়ে তার মা শ্রীমতি রুলী সেপটিক ট্যাংকে ঝাপ দেয়। এ সময় তাদের বাঁচাতে গিয়ে হৃদয় ঝাপ দিলে কেউ আর উঠতে পারেনি। নিহতদের লাশ ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত