প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ঠাকুরগাঁওয়ে মামলা তুলে নিতে স্ত্রীকে হয়রানী ও প্রাণ নাশের হুমকি

সাদ্দাম হোসেন : [২] নির্যাতনের শিকার ওই স্ত্রী গত ১৯ ফেব্রুয়ারী তার স্বামী সাইফুর রহমান ফারুকের বিরুদ্ধে ঠাকুরগঁাও সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করলে ওইদিন রাতেই পুলিশ তাকে আটক করে। এর পর থেকেই অভিযোগকারী স্ত্রী অহিদা পারভিনকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে আসছে ফারুকের পরিবারের লোকজন।

[৩] ভুক্তভোগী স্ত্রী অহিদা পারভিন জানান, ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসে জেলার সদর উপজেলার ফকদনপুর গ্রামের শামসুল হকের পুত্র সাইফুর রহমান ফারুকের সাথে আমার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই আমার স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন আমাকে যৌতুকের ৫ লাখ টাকার জন্য চাপ দিতে থাকে এবং শারিরিক ও মানসিক নির্যাতন করে। আমি একটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরী করি এবং প্রাইমারী ট্রেনিংয়ের জন্য আমাকে ঠাকুরগঁাও পিটিআই এর পাশে একটি বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতে হয়। ঘটনার দিন গত ৫ ফেব্রুয়ারি আমার স্বামী এবং তার পরিবারের লোকেরা আমার ওপর অমানবিক অত্যাচার চালায়। আমি ও আমার মেয়ে দুজনেই আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে বিলম্ব করে মামলাটি করি। মামলা করার পর পুলিশ ফারুককে আটক করে ।

[৪] এরপর থেকেই ফারুকের পরিবারের লোকেরা আমাকে রাস্তাঘাটে বিভিন্ন ভাবে প্রাণ নাশের হুমকি দিতে থাকে এবং আমাকে হয়রানি করার উদ্দেশ্যে তারা বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকায় আমার ছবি ব্যবহার করে মিথ্যে ও বানোয়াট সঙবাদ প্রকাশ করে।

[৫] এ ব্যপারে জেলার সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তানভীরুল ইসলাম জানান, আমরা অহিদা পারভিনের মামলাটির প্রেক্ষিতে তার স্বামী ফারুককে সেদিন রাতেই গ্রেফতার করি। অহিদাকে প্রান নাশের হুমকির বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে সে অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেবো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত