প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পুলিশি ব্যারিকেডের মধ্যে খুলনায় বিএনপির মহাসমাবেশ, সরকার হটানোর প্রস্তুতি নিতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান

জাফর ইকবাল: [২] খুলনা বিভাগীয় মহাসমাবেশ করার জন্য কে ডি ঘোষ সড়ক (মহারাজ সড়ক) ব্যবহারের অনুমতি চেয়েছিলো বিএনপি। পুলিশের পক্ষ থেকে অনুমতি না দেওয়ায় দলীয় কার্যালয়ের সামনেই সমাবেশ করে তারা। সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দাবি, সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের বীর উত্তম খেতাম বাতিলের ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে শনিবার বেলা আড়াইটা থেকে ঐ সমাবেশ শুরু হয়।

[৩] মহাসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ব্যারিষ্টার শাহজাহান ওমর বীরউত্তম বলেন, এ সরকারের কাছে দাবি করা একটা ভিক্ষা। জিয়াউর রহমানের রাজনৈতিক দর্শন খালেদা জিয়ার দর্শন। আমরা ভিক্ষা চাওয়ার লোক না। আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে আমাদের দাবি, আমাদের পাওনা আদায় করতে হবে। আওয়ামী লীগ কোনোদিন জনগণের ভোটে ক্ষমতায় আসতে পারেনি।

[৫] বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, খুলনার মহাসমাবেশে কর্মীদের আসতে পথে পথে বাধা দিয়েছে। তারপরও হাজার হাজার জনতা সমাবেশে উপস্থিত হয়ে সরকার পতনের ডাক দিয়েছে। তিনি বলেন, এ বছরই সরকারের শেষ সময়।

[৬] সভাপতির বক্তব্যে নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, সমাবেশ পণ্ড করার জন্য পুলিশ বাড়ি বাড়ি যেয়ে ভয়-ভীতি এবং দুদিনে ৩১ জন কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে। তারপরও মহাসমাবেশ সফল করেছে। আগামীতে নির্বাচনকে অর্থবহ করতে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে নির্বাচনের দাবি করেন বিএনপির এ নেতা। সম্পাদনা : মোহাম্মদ রকিব

সর্বাধিক পঠিত