প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] যুুক্তরাষ্ট্রের বেসরকারি নিরাপত্তা ঠিকাদার এবং ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ এরিক প্রিন্স লিবিয়ায় জাতিসংঘ আরোপিত অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা লংঘন করেছেন

আব্দুল্লাহ যুবায়ের: [২] জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের এক গোপন প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের এ ব্যবসায়ী ফিল্ড মার্শাল খলিফা হাফতারকে সৈন্য ও অস্ত্র দিয়ে সহযোগিতা করেছিলেন। আল জাজিরা, ভয়েস অব আমেরিকা

[৩] ২০১৯ সালে হাফতার জাতিসংঘ সমর্থিত লিবীয় সরকারকে উৎখাত করার জন্য লড়েছিলেন। তার বিরোধী শীর্ষ সেনা কামান্ডারদের হত্যার জন্য একটি স্কোয়াড গঠন করার পরিকল্পনাও ছিলো তার।

[৪] তার বিরুদ্ধে অভিযোগ হচ্ছে, তিনি লিবিয়ায় জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা এবং সংস্থাটি সমর্থিত সরকারকে উৎখাতে ষড়যন্ত্র করেছিলেন। ২০০৭ সালে তিনি তার ভাড়াটে সৈন্য দিয়ে ইরাকে নিরস্ত্র বেসামরিক লোকদের হত্যা করেছিলেন।

[৫] ২০২০ সালে এ অপরাধে দণ্ডপ্রাপ্ত চারজনকে ক্ষমা করে দিয়েছিলেন ট্রাম্প। বর্তমানে তা নিয়ে পুনরায় বিচার শুরু হয়েছে।

[৭] দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস বলছে, প্রিন্সের ভ্রমণ ও ব্যবসার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হতে পারে।

[৮] এরিক প্রিন্স যুক্তরাষ্ট্রের নেভি সীলের একজন সাবেক সদস্য এবং ট্রাম্পের সাবেক শিক্ষামন্ত্রীর ভাই। বর্তমানে ব্ল্যাকওয়টার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সম্পাদনা: আসিফুজ্জামান পৃথিল

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত