প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সাভারে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ১

ইমদাদুল হক: [২] সাভারে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সাবেক শিক্ষার্থী হত্যার ঘটনায় দেলোয়ার হোসেন দিলু ওরফে ইমন (৩৫) নামে হত্যাকাণ্ডের ঘটনার মূলহোতাকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

[৩] শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম।

[৪] এর আগে সাভারের রাজাশনের পালোয়ানপাড়া এলাকা থেকে গত শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-৪। এই নিয়ে মোট তিনজনকে গ্রেপ্তার করা করা হলো।

[৫] গ্রেপ্তার দেলোয়ার হোসেন দিলু সাভারের রাজাশন এলাকার নুর মোহাম্মদের ছেলে। তিনি ২০১২ সালের দিকে হত্যা, ছিনতাই, ডাকাতিসহ একাধিক মামলায় হাজত খেটেছেন। জামিনে এসে তিনি সাভারে ছিনতাই চক্র গড়ে তোলেন বলে দাবি পুলিশের। এর আগে আজাদ শরীফ (৩০) ও রনি ওরুফে কুত্তা রনিকে (৪৮) গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-৪।

[৬] র‌্যাব-৪ এর উপ-পরিদর্শক কাইসার মাতুব্বর জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাভারের রাজাশন এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে সাভার মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। এর আগে আজাদ শরীফ ও রনি ওরুফে কুত্তা রনিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যমতে দেলওয়ারের সম্পৃক্ত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সাভার মডেল থানার উপপরিদর্শক তাহমিদুল ইসলাম বলেন ছিনতাই ও হত্যা মামলায় দিলুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

[৭] প্রসঙ্গত, গত ২৪ অক্টোবর ভোরে রাজশাহী থেকে বাসে সাভারের সিআরপি রোড এলাকায় নামেন স্কুল কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান। এসময় ছিনতাইকারীরা তার কাছে থাকা অর্থ ও মোবাইল ফোন নিতে গেলে মোস্তাফিজুর বাঁধা দেয়। পরে ছিনতাইকারীরা তাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে মোবাইল ফোন, নগদ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। এঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে পরদিন সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এরপরই র‌্যাব বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। সম্পাদনা: হ্যাপি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত