প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কূটনীতির নতুন দিক উন্মোচিত করেছে ক্ররানা ভ্যাকসিন, প্রথমবারের মতো পশ্চিম হেরে যাচ্ছে পূর্বের কাছে

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [৩] জানুয়ারি মাসে সার্বিয়ার প্রেসিডেন্ট আলেকসান্দার ভুচিচ বলেন, আজকাল করোনার ভ্যাকসিন পাওয়ার চেয়ে পারমাণবিক অস্ত্র পাওয়া অনেক সুযোগ। তিনি চেয়ে চেয়েও পশ্চিমা কোনও ভ্যাকসিন পাননি। কারণ পশ্চিমা ভোগবাদী সমাজ নিজেদের প্রয়োজনের চেয়ে কয়েকগুন ভ্যাকসিন মজুদ করে রেখে দিচ্ছিল। তবে এই বক্তব্যের সময়েই চীনের সিনোফার্ম থেকে ১০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পান। এছাড়াও রাশিয়া সার্বিয়াকে স্পুৎনিক-৫ দিয়েছে। দ্য গার্ডিয়ান

[৪] বেলগ্রেড এখন নিজেরাই রুশ ভ্যাকসিন বানাচ্ছে। এই ভ্যাকসিন তারা দিতে শুরু করেছে প্রতিবেশি মেসোডোনিয়া, মন্টেনিগ্রো আর রিপাবলিকা সর্প্সাস্কায়। পশ্চিমা দেশগুলো পারেনি। কিন্তু ভ্যাকসিন দিয়ে অন্য দেশের মন জয় করেছে রাশিয়া, চীন আর ভারত। ভারতের সেরাম ইন্সটিটিউটের সিইও আদর পুনাওয়ালা অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন তৈরির আগেই সত্ত্ব নিয়ে নিয়েছিলেন। তখন তা নিয়ে হাসাহাসি হলেও বিশ্ব এখন জানে, আদর কোনও ভুল কাজ করেননি।

[৫] আদরের সফলতার সুবিধা পাচ্ছে তার দেশ। ভারত এখন পর্যন্ত ২২টি দেশকে ভ্যাকসিন দিয়েছে। চীনও ১ ডজনের বেশি দেশকে আর ৮টি দেশকে দিতে পেরেছে রাশিয়া। এই দেশগুলো কেউ আগাম অর্থ পরিশোধ করে রাখেনি। ভ্যাকসিনগুলো ফাইজার বা মডার্নঅর মতো দামিও নয়।

[৬] করোনাভাইরাস সারা পৃথিবীর মতো কূটনীতিকেও বদলে দিয়েছে। নতুন যুগের এই ক’টনীতির ফায়দা পায়নি ভোগবাদী পশ্চিমা সমাজ। কারণ বিপদের সময়ে তারা শুধু নিজেদের কথাই ভেবেছে, পৃথিবীর কথা নয়।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত