প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফড়িং ক্যামেলিয়া: সম্পর্কের শুরুতে যে প্রচণ্ড পাগলামি থাকে, সেটা যে খুব বেশিদিন স্থায়ী হয় না, প্রেমে পড়ার বছর দুয়েকের মধ্যে প্রত্যেকে জেনে যায়

ফড়িং ক্যামেলিয়া : সম্পর্কের শুরুতে যে প্রচণ্ড পাগলামি থাকে সেটা যে খুব বেশিদিন স্থায়ী হয় না, সেটা প্রেমে পড়ার বছর দুয়েকের মধ্যে প্রত্যেকে জেনে যায়। ছেলেটা মধ্যরাতে মেয়েটার বারান্দার সামনে দাঁড়াবে, ফোনে গিটার বাজিয়ে শোনাবে, কিংবা মেয়েটা ছেলেটার সব কথায় হ্যাঁ মেলাবে, গাছ তলায় থাকার প্রতিজ্ঞায় অটল থাকবে, এই স্বাপ্নিক মুহূর্তগুলো একটা সময় আর ফেরে না। তখনই শুরু হয় দ্বন্দ্ব। আগে তো এমন ছিলে, এখন কেন এমন নেই, এটা কেন এখন করো না, আমাকে আর ভালোবাসো না, এসব অভিযোগের ঝুলি বাড়তে থাকে। সত্যিটা হলো প্রথম দিককার আকর্ষণ এমনি এমনি থাকে, এরপর আসলে ধরে রাখতে হয়। খুব কঠিন এবং খানিকটা রূঢ় শোনালেও সত্যিটা হলো, ভালোবাসা এরপর তৈরি করে নিতে হয়। যারা পারে তারা সম্পর্কে জিতে যায়, যারা পারে না তারা একসময় ভালো থেকো বন্ধু বলে আলাদা হয়ে যায়। কিন্তু দিন শেষে আবারও নতুন সম্পর্ক, আবারও সেই সমস্যা আবারও আলাদা হওয়া, শেষ পর্যন্ত বিরক্ত হয়ে কার সঙ্গে টিকে থাকা। ভালোবাসা তৈরি করার প্রথম শর্ত নিজেকে কোনো ভাবেই তার কাছে সস্তা না করা।

প্রথম থেকেই নিজের সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা দেওয়া। নিজের ব্যক্তিত্ব বিসর্জন দিলে সে ভালোবাসা আসলে কোনোভাবেই টিকবে না। যখন সম্পর্কের আকর্ষণ কমতে থাকবে তখন প্রেসার না দিয়ে বরং ছাড় দিতে হবে। একে অন্যের বন্ধু হতে হবে। প্রেম চিরকাল থাকে না, কিন্তু বন্ধুত্ব থাকলে সেখানে প্রেম কখনো একেবারে ফুরায় না। কেউ কাউকে ভয় পাওয়া চলবে না। যদি ভয় পাবার বিষয়টা চলে আসে, তবে সে সম্পর্ক নরক হয়ে যায়। লং ডিস্টেন্স রিলেশনশিপে আকর্ষণ দ্রæত ফুরায়, তাই যতোটা সম্ভব কাছাকাছি থাকাতে হবে। একসঙ্গে আড্ডা দেওয়ার মানসিকতা থাকতে হবে। শুধু মানুষটিকে না তার চারপাশের জগৎটাকে পছন্দ করার চেষ্টাটা জেন থাকে। যখন সময় বিরক্তিকর মনে হবে, তখন কোথাও যেতে হবে হাওয়া বদলের জন্য, প্রকৃতি কাছাকাছি গেলে, অনেক সময় প্রকৃতিই সম্পর্কের ধুলো মুছে দেয়। একে অন্যের মানসিক যন্ত্রণার সঙ্গী হতে হবে। কোনোভাবেই দুর্বলতা নিয়ে ঠাট্টা করা যাবে না বরং অন্য কেউ জেন না করে সেটা দেখার দায়িত্বও নিতে হবে।

মানুষের মন বলে কথা, অনেক সময় এমন হয়, হঠাৎ অন্য কাউকে ভালো লেগে গেলো, সেই সময় খুব ঠান্ডা মাথায় ভাবতে হবে, এ হুটহাট ভালো লাগার পরিণতি কী? যে সম্পর্ক এতোদিন ছিলো তা শেষ হওয়ার প্রাপ্তি কী? এ সময় নিজের প্রিয় মানুষটাকেও জানাতে হবে। সে কষ্ট পাবে, অবশ্যই পাবে, কিন্তু আপনার সততা তাকে  আপনার আরও কাছে নিয়ে আসবে। শেষ কথা হলো, একটা সম্পর্ক গড়ার আগে যেমন ভাবা উচিত ঠিক তেমনি শেষ করার আগে শেষ চেষ্টা করা খুব জরুরি। ভালোবাসা যেহেতু আজীবন কার জন্য একরকম থাকে না, সেহেতু যা আছে সেটাকে অ্যাকোরিয়ামের মাছের মতো বাঁচিয়ে রাখতে হয়। কিন্তু ভালোবাসা ফুরিয়ে যদি শুধুই তিক্ততা বাকি থাকে, তবে সেটা জীবনের ভুল মেনে নিয়ে ভুলে যাওয়াই একমাত্র পথ। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত