প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উপচে পড়া ভীড়ের মধ্যেও লাইনে দাঁড়িয়ে করোনার ভ্যাকসিন নিলেন এএসপি

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি: করোনার ভ্যাকসিন নিয়েছেন আলোচিত পুলিশ কর্মকর্তা, চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের রাঙ্গুনিয়া সার্কেলের দায়িত্বে নিয়োজিত এএসপি মো. আনোয়ার হোসেন শামীম। গতকাল সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে বারটায় রাঙ্গুনিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিকা দান বুথে সাধারণ জনগণের সঙ্গে লাইনে দাঁড়িয়ে তিনি এ ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রাঙ্গুনিয়ায় চিকিৎসক এবং প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্বাস্থ্যকর্মীদের তত্ত্বাবধানে সরকারি নিয়মনীতি অনুসরণ করে প্রতিদিন করোনার টিকা প্রদান কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। প্রথমদিকে অনেকে টিকা গ্রহণ নিয়ে দোটানায় থাকলেও এখন সেই দ্বিধা অনেকটাই কেটে গেছে। গতকাল দুপুরে রাঙ্গুনিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এই প্রতিবেদক সরেজমিন উপস্থিত হয়ে দেখতে পান যে, কয়েক শ নারী পুরুষ সারিবদ্ধভাবে টিকাদান বুথের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন। সাড়ে ১২টার দিকে সার্কেল এএসপি সেখানে উপস্থিত হলে উপস্থিত স্বাস্থ্যকর্মীগণ তাকে সরাসরি ভেতরে যেয়ে টিকা গ্রহণ করার অনুরোধ জানান। কিন্তু সকলকে অবাক করে দিয়ে এ ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা অন্য সকলের মতো সারিতে দাঁড়িয়েই টিকা নেন ।

এ প্রসঙ্গে এএসপি মো. আনোয়ার হোসেন শামীম বলেন, সবাই কষ্ট করে লাইন ধরে দাঁড়িয়ে টিকা নিচ্ছিলেন। আমি বাড়তি সুবিধা গ্রহণ না করে চেয়েছি তাদের সাথে অপেক্ষার কষ্টটি ভাগাভাগি করে নিতে।

এ সময় টিকা গ্রহণ করার পর সুস্থ-স্বাভাবিক আছেন জানিয়ে সবাইকে নির্ভয়ে টিকা নেওয়ারও অনুরোধ জানান র‍্যাবের সাবেক এই কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, এএসপি আনোয়ার হোসেন শামীম সিলেট র‍্যাব-৯ এর করোনা রেসপন্স এন্ড ম্যানেজমেন্ট টিমের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে অসংখ্য করোনা রোগীর চিকিৎসা ও পূনর্বাসন প্রক্রিয়ায় প্রত্যক্ষভাবে সম্পৃক্ত ছিলেন। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত ওয়ার্ডে করোনা রোগীদের সাথে পড়ে থেকে মানবতার অন্যরকম নজির স্থাপন করেন তিনি। এর আগে শ্রীমঙ্গল র‍্যাব ক্যাম্পের অধিনায়ক হিসেবে করোনা কালে তার ব্যাপকভিত্তিক ত্রাণ এবং মানব সেবামূলক কার্যক্রমও দেশবাসীর অকুণ্ঠ প্রশংসা পায়। ৩৪তম বিসিএস পুলিশ ব্যাচের এই মেধাবী কর্মকর্তা খাগড়াছড়ি জেলার উত্তর বড়বিল গ্রামের বিলকিস বেগম এবং আব্দুল মান্নান দম্পতির তৃতীয় সন্তান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত