প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]সারাদেশে নদী দখলদার ৫৭ হাজার ৩৯০ জন, উচ্ছেদ ২৩ হাজার ৮৯০ স্থাপনা

সমীরণ রায়: [২] অবৈধ দখল উচ্ছেদের জন্য বছরব্যাপী ব্যাপক কার্যক্রম (ক্রাশ প্রোগ্রাম) চলছে। ইতোমধ্যে ২০১৯-২০২১ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৫ হাজার ৩১১টি দখল উচ্ছেদ হয়েছে। ঢাকা নদী বন্দরে ৩ হাজার ৩৩২টি, নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরে ১ হাজার ৮৭০টি, আশুগঞ্জ-ভৈরব বাজার নদী বন্দরে ৫০টি ও নওয়াপাড়া নদী বন্দরে ৫৯টি স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে বিআইডব্লিউটিএ।
[৩] চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি প্রকাশিত জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের ২০১৯ সালের বার্ষিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, কমিশনের তত্ত্বাবধানে জেলা প্রশাসকদের মাধ্যমে ২০১৯ সালে সারা দেশে দখলদারের সংখ্যা ছিল ৫৭ হাজার ৩৯০টি। উচ্ছেদ হয়েছে ১৮ হাজার ৫৭৯টি দখল।
[৪] প্রতিবেদন অনুযায়ী, উচ্ছেদের হার ৩২.৩৭ শতাংশ। করোনাকালীন পরিস্থিতিতে উচ্ছেদ কার্যক্রম বন্ধ থাকায় হার ছিলো ২৯.৬৬ শতাংশ। সবচেয়ে বেশি নদী দখলদার খুলনা বিভাগে। সেখানে দখলদারের সংখ্যা ১১ হাজার ২৪৫। এই বিভাগে ২০১৯ সালে উচ্ছেদ হয়েছে ৪হাজার ৮৯০টি অবৈধ দখলদারকে। নদী দখলদারের সংখ্যা সবচেয়ে কম সিলেট বিভাগে ২হাজার ৪৪। উচ্ছেদ করা হয়েছে ৫৭৬ জনের অবৈধ স্থাপনা। ঢাকা বিভাগে ৮হাজার ৮৯০টির মধ্যে উচ্ছেদ হয়েছে ৫ হাজার ৯৩৫টি স্থাপনা। ঢাকা জেলায় ৬ হাজার ৭৫৮টির মধ্যে উচ্ছেদ হয়েছে ৫হাজার ৭৯৯টি স্থাপনা।
[৫] বিআইডব্লিউটিএ-এর যুগ্ম পরিচালক গুলজার আলী বলেন, অবৈধভাবে দখল হওয়া নদীগুলোর স্থাপনা উচ্ছেদের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। যে পর্যন্ত সব অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ না হবে, সেই পর্যন্ত এ অভিযান চলবে। সম্পাদনা: শাহানুজ্জামান টিটু

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত