প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] উইকেট ভালো ছিল, ভুলটা আমাদের: তামিম ইকবাল

মাহিন সরকার: [২] টেস্ট ক্রিকেটে টোপ দিয়ে উইকেট নেয়া বেশ পুরনো কৌশল। লাল বলের অভিজাত ফরম্যাটে প্রতিপক্ষের এই সাজানো টোপে নিয়মিতই আটকা পড়েন বাংলাদেশ দলের ব্যাটসম্যানরা। ব্যতিক্রম হলো না চলতি ঢাকা টেস্টেও। শুক্রবার ম্যাচের দ্বিতীয় দিন শেষ সেশনে রীতিমতো আত্মহত্যার মিছিলে যোগ দেন সৌম্য সরকার, নাজমুল হোসেন শান্ত, তামিম ইকবালরা।

[৩] সবচেয়ে বড় উদাহরণ নাজমুল শান্তর উইকেট। শুরুতেই সাজঘরে ফিরে গেছেন ওপেনার সৌম্য, চাপ সরাতে আগের ওভারে ছক্কা হাঁকিয়েছেন আরেক ওপেনার তামিম। এমতাবস্থায় ইনিংসের তৃতীয় ওভারের প্রথম বলটি ড্রাইভ করতে দেন গ্যাব্রিয়েল, সুযোগ হাতছাড়া না করে বাউন্ডারি মেরে দেন শান্ত। যা ছিল তার মোকাবিলা করা প্রথম বল।

[৪] পরের বলটি একই লেন্থে রাখলেও, অফস্ট্যাম্পের আরও বাইরে করেন গ্যাব্রিয়েল। আগের বলের মতোই ড্রাইভের চেষ্টা করেন শান্ত। কিন্তু শরীর থেকে অনেক দূরের বলটি তার ব্যাটের বাইরের কানায় লেগে চলে যায় গালিতে দাঁড়ানো এনক্রুমাহ বোনারের হাতে। সমাপ্তি ঘটে শান্তর দুই বলের ছোট্ট ইনিংসের।

[৫] শান্তর মতোই নিজেদের উইকেট বিলিয়ে দেন তামিম, সৌম্য এবং অধিনায়ক মুমিনুল হক। যে কারণে ম্যাচের দ্বিতীয় দিন শেষে স্বস্তিতে নেই বাংলাদেশ, ৪ উইকেটে স্বাগতিকদের সংগ্রহ ১০৫ রান। ক্যারিবীয়দের চেয়ে এখনও ৩০৪ রানে পিছিয়ে টাইগাররা, ফলোঅন এড়াতে করতে হবে আরও ১০৫ রান।

[৬] দিনের খেলা শেষে দলের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান তামিম মেনে নিয়েছেন নিজেদের ভুল, জানিয়েছেন উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য অসম্ভব ভালো ছিল। আজ যদি বাংলাদেশ দুইটি উইকেট কম হারাতো, তাহলে অবস্থান আরও ভালো থাকতো বলে করেন দেশসেরা এ ওপেনার।

[৭] তামিম বলেন, উইকেট অসম্ভব ভালো ছিল। আমরা যখন ব্যাটিংয়ে নামি, তখনও অনেক ভালো ছিল। তেমন কিছু হচ্ছিল না উইকেটে। আমার কাছে মনে হয়, যে চারটা উইকেট পড়েছে, কোনোটা যে খুব ভালো বলে বা উইকেটের কারণে পড়েছে, তা নয়। আপনি যদি দেখেন, চারটাই ব্যাটসম্যানদের ভুল ছিল দেখে পড়েছে।

[৮] আজ যদি আমাদের ২টা উইকেট কম পড়তো এবং এ রানটা (১০৫) থাকতো, তাহলে আমাদের অবস্থান আরও ভালো হতো। যেহেতু ৪টা উইকেট পড়ে গেছে, তাই বলতেই হবে ওরা চালকের আসনে। তবে আমরা যদি কাল বড় পার্টনারশিপ করতে পারি, ১০০-১৫০ রানের জুটি গড়তে পারি, তাহলে আবার ম্যাচে ফিরতে পারব।

[৯] আগেরদিনে করা ৫ উইকেটে ২২৩ রান নিয়ে আজকের খেলা শুরু করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। প্রথম দিনের খেলা শেষে আবু জায়েদ রাহি জানিয়েছিলেন, ক্যারিবীয়দের ৩০০ রানের মধ্যে আটকে রাখতে চান তারা। তা হয়নি, উল্টো চারশ রানের গণ্ডি পেরিয়ে ৪০৯ রানে থেমেছে সফরকারিদের ইনিংস। তাদের ৩০০ রানে আটকে রাখার পরিকল্পনায় সফল না হওয়ার পেছনে নিজেদের ভুলের চেয়ে প্রতিপক্ষের কৃতিত্ব বেশি দেখছেন তামিম।

[১০] তামিম আরও বলেন, সবকিছু শুধু বাংলাদেশের ভুলের কারণেই হয় না। আমরা তো চেয়েছিলাম, আজকে যত তাড়াতাড়ি উইকেট নিতে পারি। (উইকেট) নিয়ে ওদেরকে যদি ৩০০’র নিচে রাখা যেতো, তাহলে এটা আমাদের জন্য খুব ভালো হতো। তবে এটাও বুঝতে হবে, উইকেট খুব ভালো ছিল, আমাদের স্পিনারদের একদমই সাহায্য করেনি।

[১১] এছাড়া তারা বেশ ভালো ব্যাটিংও করেছে। সবকিছু আমাদের ভুলের কারণে এমন নয়, কিছু কৃতিত্ব তাদেরও দিতে হবে। তারা অসাধারণ ব্যাটিং করেছে। জোসেফ নেমে খুব ভালো খেলেছে। সে ৭০ এর বেশি (৮২) রান করেছে, উইকেটরক্ষক (জশুয়া ডা সিলভা) ভালো খেলেছে। আমরা অবশ্যই কিছু না কিছু ভুল করেছি, তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজকেও কৃতিত্ব দিতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত