প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মালিক-শ্রমিকদের সম্পর্ক উন্নয়নে প্রতি বুধবার বৈঠক আমাদের প্রধান অর্জন: ড. রুবানা হক

শরীফ শাওন: [২] বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক বলেন, সংগঠনের দায়িত্ব নিয়ে সকল কাজের মধ্যে এটি আমাদের বড় অর্জন। বিজিএমই ব্যবসায়ীদের স্বার্থে কাজ করে। পদ নয় বরং কাজ করার মানসিকতা রাখতে হবে।

[৩] ২০১৯ সাল থেকে সাফল্যের ধারাবাহিকতায় তিনি বলেন, করোনা সংকটে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের জন্য প্রধানমন্ত্রী ১০ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা দিয়েছেন, সল্প সুদে দিয়েছেন ৩০ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজ। এসএমই খাতে ২০ হাজার কোটি টাকা। ৫ হাজার কোটি টাকার প্রি ট্রিটমেন্ট প্যাকেজ। এসময়ের মধ্যে আমরা কাঙ্খিত ১ হাজার কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন তহবিল গঠনে সক্ষম হয়েছি।

[৪] রুবানা হক বলেন, সকল ঋণ পরিশোধের সময় বাড়ানো হয়েছে। পিপিই সংশ্লিষ্টতায় ভ্যাট ও শুল্ক মুক্ত করা, কন্টেইনার খরচ ও বিমান পরিবহনে বিশেষ ছাড় পেয়েছি।

[৫] সভাপতি বলেন, দায়িত্ব নেওয়ার পর আমাদের প্রথম অর্জন রপ্তানির বিপরীতে অতিরিক্ত ১ শতাংশ বিশেষ নগদ সহায়তা। ইউটিলিটি বিলের ভ্যাট প্রত্যাহার। এসএসই খাতে রপ্তানি ৩.৫ মিলিয়ন থেকে ৫ মিলিয়নে উন্নতিকরণ। এসএমই’তে সোয়েটার ও ওভেন কারখানার ক্যাশ ইনসেনটিভ সুবিধা নিশ্চিতকরণ। এখাতে সুতা রপ্তানিতে সিএম ভ্যালুর ৪ শতাংশ নগদ সুবিধা। শর্ট শিপমেন্টে কাস্টম ও বাংলাদেশ ব্যাংকের মধ্যে সমস্যা নিরসন। ব্যাক টু ব্যাক এলসি অর্থ পরিশোধে বৈদেশিক মুদ্রা সংরক্ষণের অনুমতি। এলসি খোলার ক্ষেত্রে ঋণ পরিশোধের সময় বাড়ানো।

[৬] শনিবার এক সভায় তিনি দীর্ঘদিনের জটিলতা নিরসনসহ আরও অনেক অর্জন তুলে ধরেন। পরবর্তীতে সভাপতি হিসেবে না থাকলেও সদস্য হিসেবে অসমাপ্ত কাজ করার অভিমত ব্যাক্ত করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত