প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]পৌর নির্বাচনে জামানত হারিয়েছেন আওয়ামী লীগের ২ এবং বিএনপির ৩৫ প্রার্থী

শরীফ শাওন: [২] ২৮৫ স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে জয়লাভ করেছেন মাত্র ২৬ জন।

[৩] নির্বাচনে অংশ নেওয়া ১৮ দলের ২০০ এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ২৫০ জন জামানত হারিয়েছেন। ভোটার সংখ্যার ৮ ভাগের ১ ভাগ ভোট না পাওয়ায় তাদের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।

[৪] নির্বাচন কমিশন (ইসি) পরিচালনা শাখার উপ-সচিব সামসুল আলম বলেন, জামানতের টাকা সরকারি কোষাগারে জমা হবে। নির্ধারিত সংখ্যার বেশি যারা ভোট পেয়েছেন তারা জামানতের অর্থ ফেরত পাবেন। ইতোমধ্যে অধিকাংশ প্রার্থী জামানতের টাকা উত্তোলনে করেছেন।

[৫] ফল বিশ্লেষণে দেখা যায়, বিএনপির ৩৫ জন মেয়রপ্রার্থী ন্যূনতম ভোট না পেয়ে জামানত হারিয়েছেন। ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে লড়াই করে ১ হাজারের কম ভোট পেয়েছেন অন্তত ২৯ জন প্রার্থী। দলটির ৩ প্রার্থীর ভোট সংখ্যা একশরও কম। একটি পৌরসভায় বিএনপির প্রার্থী সর্বনিম্ন ৮৪ ভোট পেয়েছেন। ১ হাজারের চেয়ে বেশি এবং ২ হাজারের কম ভোট পেয়েছেন এমন পৌরসভার সংখ্যা ১৮টি।

[৬] ২৩৪টি পৌরসভার মধ্যে ২২৭টির ফল ঘোষণা করা হয়েছে। মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ১৭৭ ও বিএনপির প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন ২২ আসনে। বাকি রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে কেবল জাতীয় পার্টির একজন মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। ২৬ জন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে ১৮ জনই আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী।

[৭] ইসি কর্মকর্তারা আরও জানান, ২০ দলের সাড়ে ৬ শতাধিক প্রার্থী অংশ নিলেও প্রধান দুই দলের বাইরে বাকি প্রায় সবারই জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। সম্পাদনা: রায়হান রাজীব

 

 

 

 

 

 

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত