প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাগেরহাটে মোংলা শহরে কুকুরের উপদ্রব, আতঙ্কে পথযাত্রীরা

শেখ সাইফুল ইসলাম: [২] জেলার মোংলায় বিভিন্ন পাড়া মহল্লার ওলি গলির মাথায় ক্ষ্যাপা পাগলা কুকুরের উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে ব্যাপক হারে । এই পাগলা কুকুর পথযাত্রীদের চলার পথে দেখলেই তেড়ে আসে। ফলে পথযাত্রীদের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়ছে।

[৩] মোংলা পৌরসভার মেয়র বললেন, কুকুর নিধনের সুযােগ নেই।ক্ষ্যাপা পাগলা কুকুরের হাত থেকে বাঁচতে উপায় জনসচেতনতার বিকল্প নেই। মোংলা পশ্চিম শেহলাবুনিয়া রোডের বাসিন্দা সোহেল রানা জানান, আমি একজন কাপড় ব্যবসায়ী। রাত ৯টা থেকে ১০ টার পরে শহরের বিভিন্ন মোড়ের মাথায় প্রতিদিন ৭-৮ টি ক্ষ্যাপা , পাগলা কুকুর তেড়ে আসে কামড়াতে ।

[৪] এসময় কৌশলে কুকুরের হাত থেকে বেচে বাসায় ফিরি। প্রতিদিনই এরকম ঘটনা ঘটে। আমি এবং আমার মত অনেকেই কুকুরের তাড়া খেয়ে খুবই আতংকের মধ্যে আসা যাওয়া করে।

[৫] মোংলা কবরস্থান রোডের বাসিন্দা জসিম ও নজরুল ইসলাম অভিযােগ করে বলেন গত রবিবার রাত ১০ টার দিকে পাগলা কুকুরের তাড়া খেয়ে খুবই আতংকিত হয়ে পড়েছিলাম । ভাগ্যিস দৌড় না দিয়ে হাতে থাকা পাউরুটি ২ পিস ছুড়ে দিয়ে কৌশলে পালিয়ে আসি।

[৬] শহরতলীর কেওড়াতলা এলাকার বাসিন্দা আলামিন অভিযােগ করে বলেন, গত সােমবার রাত ১২ টার দিকে মোংলা কলেজের সামনে দিয়ে মােটরসাইকেল নিয়ে রুগি দেখতে মোংলা হাসপাতালে যাই। কলেজের সামনে কয়েকটি পাগলা কুকুর আমাকে তাড়া করে। অল্পের জন্য কুকুরের কামড়ের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছি।

[৭] উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডাঃ জিবিতোষ বিশ্বাস বলেন, ক্ষ্যাপা, পাগলা কুকুরে যদি কাউকে কামড়ায় তাহলে নিদৃষ্ট সময়ের মধ্যে ভ্যাকসিন দিলে সমস্যা হবে না। কিন্তু কুকুরের কামড়ে ত- তো হবেই । কিন্তু কুকুরে কামড়ানো রুগীর নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ভ্যাকসিন না দিলে জলাতঙ্ক রোগ দেখা দিতে পারে। আর জলাতঙ্ক রােগ হলে ওই রুগীর মৃত্যু নিশ্চিত । তবে মোংলা হাসপাতালে ভ্যাকসিনের কোন ব্যাবস্থা নেই।

[৮] জানতে চাইলে মোংলা পৌর মেয়র জুলফিকার আলী বলেন, ক্ষ্যাপা ,পাগলা কুকুরের হাত থেকে বাচাঁর একমাত্র পথ হচ্ছে জনসচেতনতা। যারা কুকুর পোষে ও কুকুর পালনকারীদের জনসচেনতার মাধ্যমে এগিয়ে আসতে হবে। তাদের এব্যাপারে সচেতন হয়ে যাতে রাস্তায় যেয়ে পথযাত্রীদের ভিতরে ভীতির হাত থেকে রক্ষা করতে হবে ।

[৯] ঢাকা হাইকোর্টের একটি রিটের আদেশ আছে, কুকুর নিধন না করতে। এছাড়া কুকুরে কামড়ালে জনসাধারণকে বাঁচাতে পৌরসভার মাধ্যমে ভ্যাকসিনের আপাতত কোন ব্যাবস্থা নেই। মুল কথা কুকুর পালনকারীদের জনসচেতনতার মাধম্যে এগিয়ে আসতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত