প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] উইঘুর ক্যাম্পের অন্ধকার দিক, গোপনে চলে গণধর্ষণ

সুমাইয়া ঐশী: [৩] চীনের উইঘুর ক্যাম্পে মুসলিমদের ওপর চলা নির্যাতনের খবর এখন বিশ্ববাসীর অজানা নয়। এবার জানা গেলো, এই ক্যাম্পে গোপনে নারীদের ধর্ষণ করা হয়। বিবিসি

[৪] ঐ ক্যাম্পে নয় মাস কাটিয়েছেন তুরসুনায় জিয়াউদুন। তিনি জানান, স্যুট-প্যান্ট ও মুখোশ পরা কিছু চীনা পুরুষ থাকে ঐ ক্যাম্পে। মধ্যরাতে তারা তাদের পছন্দমতো নারীদের একটি অন্ধকার ঘরে নিয়ে নির্যাতন ও ধর্ষণ করে। আর সেখানে নজরদারি করার মতো কোনো সিসিটিভি ক্যামেরাও থাকে না।

[৫] তুরসুনায় জানান, তিনি নিজেও একাধিকবার গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। তিনি বলেন, যেসব নারীদের নিয়ে যাওয়া হতো তাদের মধ্যে অনেককেই আর ফিরিয়ে আনা হতো না। আর যারা ফিরে আসতো, তাদের সাবধান করে দেওয়া হতো যেন তারা কাউকে কিছু না বলে। লম্বা পোশাক পরার দায়ে অনেক নারীকে গুলি করে হত্যাও করা হয়েছে।

[৬] কাজাখস্তানের আরেক নারী যিনি ঐ ক্যাম্পে ১৮ মাস কাজ করেছেন তিনিও বর্ণনা করেন একই নৃশংস নির্যাতনের কথা। তার কাজই ছিলো একটি ঘরে হ্যান্ডকাফ দিয়ে নারীদের বেঁধে রাখা এবং ধর্ষণের জন্য প্রস্তুত করা।

[৭] পুনঃশিক্ষার নামে সেখানে সব ধরণের অত্যাচার চলে, যার অনেক তথ্য থেকে যায় ক্যাম্পের চার দেওয়ালের মধ্যেই। সম্পাদনা : মোহাম্মদ রকিব

সর্বাধিক পঠিত