প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ১৫ বছর পর স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি: [২] কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার হাত কাজলা গ্রামের হারেছ মিয়ার মেয়ে রেখা আক্তারকে (২০) দা দিয়ে গলা কেটে নৃশংসভাবে হত্যার দায়ে পলাতক স্বামী জিয়াউদ্দিনকে (২৬) মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ডের রায় দিয়েছেন।

[৩] সোমবার বিকেলে কিশোরগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক কিরণ শঙ্কর হালদার জনাকীর্ণ আদালতে আসামির অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত জিয়া উদ্দিন জেলার মিঠামইন শ্যামপুর গ্রামের আব্দুস সোবহানের ছেলে।

[৪] জানা গেছে, জিয়াউদ্দিনের বাড়ি মিঠামইনে হলেও তাড়াইল উপজেলার হাতকাজলা গ্রামের হারেছ মিয়ার মেয়ে রেখা আক্তারকে (২০) বিয়ে করে সেই গ্রামেই বাড়ি করে বসবাস করতেন। ২০০৬ সালের ১৪ জুলাই রাত ৮টার দিকে ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের জন্য জিয়াউদ্দিন তার ঘরে স্ত্রী রেখা আক্তারকে জবাই করে হত্যা করে পালিয়ে যান।

[৫] এ ঘটনায় রেখার বাবা মো. হারেছ মিয়া বাদী হয়ে ১৫ জুলাই জিয়াউদ্দিনকে আসামি করে তাড়াইল থানায় মামলা দায়ের করেন। তদন্তশেষে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তাড়াইল থানার এসআই লুৎফর রহমান একই বছরের ৪ অক্টোবর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। চার্জশিট দেওয়ার ১৫ বছর পর এ মামলার রায় দেওয়া হলো।

[৬] সরকার পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট এম এ আফজাল, আর আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট জহুরা তামান্না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত