প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ডিএনসিসির নতুন প্রকল্পে ফুটওভারব্রিজ ও ১৬টি চলন্ত সিঁড়ি নির্মাণ হবে

সুজিৎ নন্দী: [২] ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা ও পথচারীদের নিরাপদ রাস্তা পারাপারে ৪৪টি নতুন পথচারী সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সরকারি অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। ট্রাফিক অবকাঠামো উন্নয়নসহ সড়ক নিরাপত্তা’ শীর্ষক প্রকল্পটির মাধ্যমে মোট নতুন ৩৬টি ফুটওভার ব্রিজ ও নতুন ৮টি ব্রিজে ১৬টি চলন্ত সিঁড়ি (এসকেলেটর) তৈরি হতে যাচ্ছে।

[৩] ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, গতবছর মার্চে প্রগতি সরণিতে সড়ক দুর্ঘটনায় বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবরার আহমেদ চৌধুরী নিহতের পর নগরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পদচারী সেতু এবং চলন্ত সিঁড়ি নির্মাণে প্রকল্প তৈরির নির্দেশনা দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সে অনুযায়ী এ প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে।

[৪] তিনি আরো বলেন, আগে যে সিঁড়ি স্থাপন করা হয়েছিল, সেগুলো বাইরের জন্য উপযোগী ছিল না। ফলে ধুলা ও বৃষ্টির পানিতে কিছুদিনের মধ্যেই নষ্ট হয়ে যায়। এখন যেগুলো লাগাচ্ছি, ধুলা ও বৃষ্টিতে সেগুলোর সমস্যা হবে না। ঠিকাদারের মাধ্যমেই এগুলো রক্ষণাবেক্ষণ করা হবে।

[৫] গত ৩ জানুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় ‘ট্রাফিক অবকাঠামো উন্নয়নসহ সড়ক নিরাপত্তা প্রকল্পের’ প্রশাসনিক অনুমোদন দেয় স্থানীয় সরকার বিভাগ। এ প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয় ৩১৯ কোটি ২৩ লাখ সাত হাজার টাকা। চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ প্রকল্পের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

[৬] ৮টি ফুটওভার ব্রিজে ১৬টি এসকেলেটর স্থাপন করা হবে সেগুলো হচ্ছে- কাকলী পদচারী সেতু, শাহীন কলেজ পদচারী সেতু, শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল, আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, সিএমএইচ হাসপাতাল, শ্যামলী ইন্টারসেকশন, মহাখালী (ডিএনসিসির অঞ্চল-৩ এর সামনে) ও প্রগতি সরণি ইস্ট-ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় পদচারী সেতু।

[৭] এরই মধ্যে প্রকল্প অনুমোদন হলেও এখন পর্যন্ত প্রকল্প পরিচালক (পিডি) নিয়োগ দেয়নি সংস্থাটি। ডিএনসিসির ট্রাফিক ইঞ্জিনিয়ারিং সার্কেলের নির্বাহী প্রকৌশলী জানান, ফেব্রুয়ারির মধ্যেই প্রকল্প পরিচালক নিয়োগ দেওয়া হবে। এ প্রকল্পের আওতায় নগরীর গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ৫০টি নতুন যাত্রী ছাউনি, ট্রাফিক সাইন স্থাপন, সড়ক মিডিয়ান ও ফুটপাত উন্নয়নের কথাও রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত