প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] লাভজনক হওয়ায় জনপ্রিয় হয়ে উঠছে সাথী ফসল

আজিজুল ইসলাম: [২] খাদ্য উৎপাদনে উদ্বৃত্ত উপজেলা হিসেবে পরিচিত দক্ষিণাঞ্চলের ছোট উপজেলা বাঘারপাড়ায় সাথী ফসল হিসেবে একই সঙ্গে একাধিক ফসল চাষ লাভজনক হওয়ায় স্থানীয় কৃষকদের মাঝে এটি দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

[৩] উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, বাঘারপাড়া উপজেলায় সাধারণত, ধান, পাট, সরিষা, গম, কলা, আলু ,করলা, শসা চাষ হয়ে থাকে। এ ছাড়াও বিভিন্ন ধরনের শাকসবজিও চাষ হয় এ উপজেলায়। স্থানীয় কৃষকদের মাঝে একই জমিতে এক সাথে একাধিক ফসল চাষ দিন দিন জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। এই ধরণের চাষকে সাথী ফসল চাষ বলা হয়ে থাকে ।

[৪] বাঘারপাড়া উপজেলায় এবার পর্যাপ্ত জমিতে সাথী ফসলের চাষ হয়েছে। এরমধ্যে রয়েছে সীমের সাথে মরিচ, আলু, হলুদ , ওল, লাউ, মিষ্টিকুমড়া, আখের সাথে সরিষা, বেগুনের সাথে শসা, ধনিয়া, মরিচ, ঢেঁড়স, বরবটি। সাথী ফসল চাষের ফলে চাষীদের সংসারের অনেক চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি বাজারে বিক্রী করে বাড়তি আয় হচ্ছে। সাথী ফসল চাষ লাভজনক হওয়ায় কৃষকদের মাঝে দিন দিন আগ্রহ বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রুহোল আমীন জানান।

[৫] নারিকেল বাড়িয়া ইউনিয়নের খানপুর গ্রামের সাথী ফসল চাষী সুবোল ভদ্র জানান, তিনি এবার ২৩ শতাংশ জমিতে সীম চাষ করেছেন। সাথে চাষ করেছেন মরিচ, বানের আলু,হলুদ ও ওল। এতে তিনি খুব লাভবান হয়েছেন।

[৬] একই গ্রামের চাষী শক্তিপদ মন্ডল ৭ কাঠা, সুধান্য মল্লিক ১০ কাঠা, সালাম সরদার ১০ কাঠা, আজগার আলী ৫ কাঠা, রেজাউল সরদার ৮ কাঠা আসাদুজ্জামান মুন্সি ১ বিঘা জমিতে সাথী ফসল চাষ করে লাভবান হচ্ছেন। সম্পাদনা: হ্যাপি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত