প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মুজিববর্ষে জমিসহ নতুন ঘর পাচ্ছে সরাইলের ভূমিহীন ও গৃহহীন ১০২ পরিবার

আরিফুল ইসলাম: [২] জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে জমি সহ নতুন ঘর পাচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার ভূমিহীন ও গৃহহীন ১০২ পরিবার।

[৩] “মুজিববর্ষে বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না”- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ ঘোষণা বাস্তবায়নে দেশের সব ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও ঘর দেওয়ার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আগামি শনিবার সারাদেশে ৬৯ হাজার ৯০৪ জন ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমিসহ ঘর প্রদান করা হবে। এ গৃহপ্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

[৪] প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের পর দেশব্যাপী বিভিন্ন জেলা-উপজেলার ন্যায় সরাইল উপজেলার নয় ইউনিয়নে যাদের জমি এবং ঘর নেই- স্থানীয় প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে তাদেরকে এসব ঘর দেয়া হবে।

[৫] সরাইল উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, গুচ্ছগ্রাম (দ্বিতীয় পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় সরাইলের চুন্টা ইউনিয়নে ৪৬টি ঘর, কালিকচ্ছ ইউনিয়নে ১৫টি ঘর, পানিশ্বর ইউনিয়নে ৭টি এবং শাহাজাদাপুর ইউনিয়ন এলাকায় ৩৪টি ঘর নির্মাণের কাজ প্রায় সম্পন্ন করা হয়েছে। প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় এক লাখ ৭১ হাজার টাকা। উপজেলার ১০২টি গৃহহীন পরিবার ২ শতাংশ খাস জমির বন্দোবস্তসহ দুই কক্ষ বিশিষ্ট সেমিপাকার এসব নতুন ঘর পাবেন।

[৬] তিনি আরও জানান, ইটের দেওয়াল, কংক্রিটের মেঝে এবং টিনের ছাউনি দিয়ে তৈরি এসব সেমিপাকা ঘরে দুইটি শয়নকক্ষ, একটি খোলা বারান্দা, একটি রান্না ঘর এবং একটি শৌচাগার রয়েছে।

[৭] সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আরিফুল হক মৃদুল জানান, সরকারি নির্দেশনা পেয়ে ভূমিহীন ও গৃহহীন মানুষের জন্য ১০২টি নতুন ঘর নির্মাণের কাজ ইতোমধ্যে প্রায় সম্পন্ন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের পর গৃহহীনদের এসব ঘর বুঝিয়ে দেয়া হবে। ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় সকল কাজও সম্পন্ন হয়েছে।

[৮] তিনি আরও জানান, ‘ক’ ক্যাটাগরির অন্তর্ভূক্ত ভূমিহীন এবং গৃহহীন সরাইলের অনেক পরিবারের তালিকা আমরা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছিলাম। এরমধ্যে প্রথম পর্যায়ে ১০২টি পরিবারকে জমি ও ঘর নির্মাণ করে দিতে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। বাকিদের পর্যায়ক্রমে জমি বন্দোবস্তসহ ঘর নির্মাণ করে দেয়া হবে। সম্পাদনা: হ্যাপি

সর্বাধিক পঠিত