প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] অর্থনীতিবিদরা কোনো কিছুর প্রকৃত মূল্য বুঝলে নারীর গৃহকর্মকে জিডিপি’র অন্তর্ভুক্ত করতেন: অর্থনীতিবিদ ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদ

দেবদুলাল মুন্না: [২] তিনি নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে এ কথা বলেন। বলেন, এর জন্য গবেষণা জরুরি। মনে করা হয় অর্থনীতিবিদরা সব কিছুর বাজার দাম জানে, কিন্তু কোনো কিছুর প্রকৃত মূল্য বোঝে না। সে কারণে রানা প্লাজার এগারো শ’ বত্রিশ জন শ্রমিকের মৃত্যুর জন্য কিছু আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিলেই হয়, নারীর গৃহকর্মকে জিডিপি-র অন্তর্ভুক্ত করা হয় না, এবং সুন্দরবনের ক্ষতির আশঙ্কা থাকলেও কয়লা-চালিত বিদ্যুৎ কেন্দ্র অর্থনৈতিক বিবেচনায় লাভজনক মনে হয়।

[৩] এর জবাবে সালাউদ্দিন বাবলু বলেন, ‘স্যার, শুনেছি, বনেদী নারীরা জিডিপিতে অন্তর্ভুক্ত হবার পক্ষপাতী নন। কারণ তারা জিডিপিতে অন্তর্ভুক্ত হলে, জিডিপি ও সরকারের লাভ, কিন্তু তাদের লস। আমাদের এক সাংবাদিক বন্ধু বিয়ের পর তার স্ত্রীকে একসময় গৃহকর্মের মূল্যস্বরূপ নিয়মিত কিছু অর্থ প্রদানের প্রস্তাব দেয়। এতে তার স্ত্রী তেলে-বেগুনে জ্বলে উঠে বলে, “আমাকে কি চাকরানীর স্তরে নামাতে চাও?” আমাদের আরেক অর্থনীতিবিদ বন্ধু একসময় তার বেতনভোগী চাকরানীকে বিয়ে করে ফেলে। এতে তার চাকরানী ’স্ত্রী’র মর্যাদা পেয়ে বেজায় খুশি। কিন্তু তার সাবেক স্ত্রী তাকে ফোন করে বললো, “মিঃ অর্থনীতিবিদ, এ কি করলে তুমি? জিডিপি’র যে লস হয়ে গেল! নিজের সাথে জিডিপি’রও বেইজ্জতির এতবড় বদনামের ভার নিতে পারলে?”

[৪]সালাউদ্দিন বাবলু জানান, অর্থনীতিবিদদের মতে জিডিপি হচ্ছে পরিসংখ্যানের বিষয়। আর ইংরেজরা পরিসংখ্যানকে তুলনা করে বিকিনি’র সাথে। সে যা প্রকাশ করে তা গৌণ, যা ঢেকে রাখে সেটাই মুখ্য। ’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত