প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রথমবারের মতো ত্রিপুরায় হচ্ছে হাতি পুনর্বাসন কেন্দ্র

ডেস্ক রিপোর্ট: ত্রিপুরায় প্রথমবারের মতো একটি হাতি ক্যাম্প তথা পুনর্বাসন কেন্দ্র নির্মাণের কাজ চলছে। খোয়াই জেলার অন্তর্গত ৩৬ মাইল এলাকায় প্রায় দুই বর্গমাইল এলাকাজুড়ে হাতির পুনর্বাসন কেন্দ্রটি তৈরি করছে রাজ্য সরকারের বন দপ্তর। বাংলানিউজ২৪

সিপাহীজলা জেলার ওয়াইল্ড লাইফ সেঞ্চুরিতে পালিত চারটি হাতিকেও পুনর্বাসন কেন্দ্রেটিতে রাখা হবে। পাশাপাশি এখানে পালিত হাতিগুলোর মানসিক অবসাদ দূর করার জন্য অ্যান্টি ডিপ্রেশন চিকিৎসা করানো হবে বলে জানিয়েছেন মুঙ্গিয়াকামী ফরেস্ট রেঞ্জ কর্মকর্তা নীল রতন বিশ্বাস।

তিনি বলেন, পুনর্বাসন কেন্দ্রটি শুধু হাতিদের জন্য থাকবে এমনটা নয়। ত্রিপুরার অন্যতম আকর্ষণীয় একটি পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে উঠবে এটি। কারণ দূর-দুরান্ত থেকে পর্যটকরা এ ক্যাম্পে এসে হাতিদের অবাধ চলাফেরা দেখতে পারবেন। বিষয়টি মাথায় রেখেই এখানে পর্যটকদের থাকার জন্য কটেজ ও হাতিদের দেখভাল যারা করবেন এসব মাহূতদের জন্য কোয়ার্টারও নির্মাণ করা হচ্ছে। পুনর্বাসন কেন্দ্রটি চালু হলে পর্যটকদের আনাগোনায় স্থানীয় লোকজনের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে।

তিনি আরও বলেন, খোয়াই জেলার অন্তর্গত কল্যাণপুর ও তেলিয়ামুড়ার পাহাড়ি এবং গ্রামীণ এলাকায় প্রতিবছর বন্য হাতির তাণ্ডবে স্থানীয় মানুষের বাড়ি-ঘরসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। এমনকি মাঝে-মধ্যে মানুষের প্রাণহানিও ঘটে। পুনর্বাসন কেন্দ্রে পালিত হাতিগুলো দিয়ে বন্য হাতির তাণ্ডব মোকাবিলাও করা যাবে। যা স্থানীয় মানুষের উপকারে আসবে।

পুনর্বাসন কেন্দ্রের নির্মাণের কাজ প্রায় শেষ হয়েছে। চলতি বছরের মাঝামাঝি সময় কেন্দ্রেটি চালু করা যাবে বলেও আশা প্রকাশ করেন রেঞ্জ কর্মকর্তা নীল রতন বিশ্বাস।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত