প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] তিনদিনেও গ্রেপ্তার হয়নি কোনও আসামি, টাঙ্গাইলে সন্তানদের সামনে ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠীর নারীকে নির্যাতনের বিচার দাবি

আরমান কবীর: [২] চুরির অপবাদে ঘাটাইল উপজেলার মালিরচালা গ্রামের সন্ধ্যা রানীকে(৩৫) গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের প্রতিবাদে বাংলাদেশ কোচ আদিবাসী ইউনিয়নের উদ্যোগে ঘাটাইল উপজেলা পরিষদের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

[৩] বুধবার অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ আদিবাসী কোচ ইউনিয়নের যুগ্মআহবায়ক রতন চন্দ্র কোচ, বাংলাদেশ আদিবাসী ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অলিক, বাংলাদেশ আদিবাসী ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সহসভাপতি শ্রী চন্দন কোচ, বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জন জেত্রা প্রমুখ।

[৪] টাঙ্গাইল জেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি সুভাস চন্দ্র সাহা বলেন,ঘটনাটির সুষ্ঠু তদন্ত করে আসামিদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

[৫] এদিকে সন্ধ্যা রানীর করা মামলার তিনদিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত কোনো আসামি গ্রেপ্তার হয়নি। টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(প্রশাসন) কাজী এদিব লুনা বলেন, আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে। তাদের গ্রেপ্তারে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে । দ্রুতই তাদের গ্রেপ্তার করা যাবে।

[৬] ৯ জানুয়ারি চুরির অপবাদে সন্ধ্যা রানী (৩৫) নামে বর্মন সম্প্রদায়ের এক নারীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে লাঠি দিয়ে বেদম পেটানো হয়। এ ঘটনায় ১০ জানুয়ারি রাতে নির্যাতিতা সন্ধ্যা রানী বাদী হয়ে পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করেন।

[৭] আসামিরা হলেন- উপজেলার সাগরদিঘী ইউনিয়নের মালিরচালা গ্রামের বাসিন্দা মনিরুল ইসলাম ভূইয়া (৮০), তার দুই ছেলে মোস্তফা (৪৫) ও সজিব ভূইয়া (৪০) এবং দুই মেয়ে খুকি বেগম (৩৭) ও সুমি আক্তার (৩২)। সম্পাদনা : মুরাদ হাসান

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত