প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ট্রাম্পের পক্ষে সহিংসতা ছড়ানোর অভিযোগে পার্লার নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছে

দেবদুলাল মুন্না:[২] এ তথ্য টেকডটনেট ও রয়টার্সের। গত তিনদিনে গুগলের পর অ্যাপল এবং অ্যামাজন নিষিদ্ধ করেছে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং প্ল্যাটফর্ম পার্লার অ্যাপটি। রয়টার্স বলছে, ডান ঘেঁষা অনেক ব্যবহারকারী পাড়ি জমিয়েছে প্ল্যাটফর্মটিতে, গত কয়েক বছরে ট্রাম্প সমর্থকদের পছন্দের জায়গা হয়ে উঠেছে অ্যাপটি। রোববার গুগল ও অ্যাপলের এক যৌখ বিবৃতিতে আহ্বান করা হয়েছে , পার্লারকে নিষিদ্ধ করতে হবে আগামী তিনদিনের ভেতরে।

[৩] বুধবার ওয়াশিংটনের ক্যাপিটল হিলে আক্রমণ করার সময়টিতে ট্রাম্প সমর্থকরা সেবাটি ব্যবহার করছিলেন। সহিংসতায় উসকানি দেয় এমন অ্যাপের বিরুদ্ধে নীতিমালা রয়েছে জানিয়ে গুগল উদাহরণ টেনেছে পার্লারের সাম্প্রতিক কনটেন্টের, যেখানে গতকাল পোস্ট করা হয়েছে ‘আমরা কীভাবে আমাদের দেশ ফিরিয়ে নিতে পারি।’

[৪] মূলধারার সামাজিক মাধ্যমের বিকল্প ‘বাক্স্বাধীনতা সমর্থক’ প্ল্যাটফর্ম হিসেবে ২০১৮ সালে পার্লার প্রতিষ্ঠা করেন জন মাটজি। নিজেকে ‘লিবার্টেরিয়ান’ বলেই দাবি করেন তিনি। পার্লার ব্যবহারকারীদের মধ্যে রয়েছেন, ধারাভাষ্যকার ক্যান্ডেস ওয়েনস, ট্রাম্পের আইনজীবী রুডি জুলিয়ানি, ডানপন্থী সক্রিয় কর্মী লরা লুমারের মতো ব্যক্তিরা। শুধু ব্যবহারের দিক থেকে নয়, পার্লারের তহবিলে ডলার দিয়েছেন এমন ট্রাম্প সমর্থকও রয়েছেন।

[৫] রক্ষণশীল কর্মী রেবেকা মার্সার নভেম্বরে জানিয়েছেন, তিনি ও তার পরিবার পার্লারের তহবিল জুগিয়েছেন। রেবেকা মার্সারের বাবা রবার্ট মার্সার হেজ-ফান্ড বিনিয়োগকারী বলেই উল্লেখ করেছে রয়টার্স।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত