প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাণিজ্যের প্রচুর সম্ভাবনা থাকলেও তার সদব্যবহার করা সম্ভব হয়নি: নেপালের রাষ্ট্রদূত

শরীফ শাওন: [৩] সম্ভাব্য চুক্তি বাস্তাবায়নে শুল্ক ও অশুল্ক বাধা দূরীকরণ, প্রশাসনিক প্রক্রিয়া সহজীকরণ, সীমান্তে সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি করা, সব ধরনের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, বিদ্যুৎ খাতে সহযোগিতা বৃদ্ধি এবং মিরসরাই ইকনোমিক জোনে নেপালী বিনিয়োগের আহ্বান জানান, দ্যা চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি (সিসিসিআই) সভাপতি মাহবুবুল আলম। তিনি আরো বলেন, ফেব্রুয়ারিতে নেপালের সঙ্গে আমদানি-রপ্তানি চুক্তি হবে।

[৪] নেপালের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক অত্যন্ত গভীর ও বন্ধুত্বপূর্ণ জানিয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত নেপালের রাষ্ট্রদূত ড. বংশীধর মিশ্রা বলেন, দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যে যুগান্তকারী পরিবর্তন সম্ভব। এ লক্ষ্যে দীর্ঘমেয়াদী রোড ম্যাপ প্রণয়ন, আকাশ পথে বিমানের সংখ্যা বৃদ্ধি, সড়ক যোগাযোগের উন্নয়ন, চিলমারীর মাধ্যমে রেল সংযোগ স্থাপন, নদী পথে ভারতের গঙ্গা হয়ে বাংলাদেশের পদ্মা নদী দিয়ে পণ্য পরিবহন, বর্ষা মৌসুমে পানি হতে উৎপন্ন বিদ্যুৎ বাংলাদেশে রপ্তানি করা এবং শীত মৌসুমে একইভাবে বাংলাদেশ থেকে বিদ্যুৎ আমদানি করা, গ্রীষ্মের সময় নেপালে উৎপাদিত সবজি, ফলমূল ইত্যাদি বাংলাদেশ কর্তৃক আমদানি ইত্যাদি কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে।

[৫] সোমবার সন্ধ্যায় মতবিনিময় সভায় তিনি, বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ৫০ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সার প্রদান, চট্টগ্রাম ও মংলা বন্দর ব্যবহারসহ আকাশ পথে যোগাযোগ বৃদ্ধিতে সৈয়দপুর বিমান বন্দর ব্যবহারের অনুমতি দেওয়ায় বাংলাদেশ সরকারের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত