প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মেসি, সুয়ারেজ ও নেইমার এখনও প্রতিদিন কথা বলেন

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] ফুটবল বিশ্ব খুব সহজে ভুলবে না এম এস এন ত্রয়ীর কথা। ২০১৪/২০১৫ মৌসুমে লুইস এনরিকের অধীনে ৪-৩-৩ ফরম্যাট সাজায় বার্সেলোনা। যেখানে লিওনেল মেসি-লুইস সুয়ারেজ ও নেইমার জুনিয়রকে নিয়ে সাজানো হয় আক্রমণভাগ। ওই মৌসুমেই লা লিগা, কোপা দেল রে ও চ্যাম্পিয়নস লিগ তথা ট্রেবল জয়ের স্বাদ পায় কাতালানরা। এই ত্রয়ী জিতেছে আরও একটি লা লিগা ও দুটি স্প্যানিশ কাপের শিরোপাও।

[৩] ২০১৭ সালে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নেইমার যোগ দেন প্যারিস সেন্ট জার্মেইতে (পিএসজি)। চলতি মৌসুম অ্যাতলোটিকো মাদ্রিদের জার্সিতে খেলছেন উরুগুয়াইন তারকা সুয়ারেজ। অন্যদিকে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসি এখনও বার্সাতেই রয়েছে।

[৪] মেসি-সুয়ারেজ-নেইমারের মাঠের বোঝাপোড়ার সঙ্গে ব্যক্তিগতও সম্পর্কও ছিল চোখে পড়ার মতো। তিনজনের বন্ধুত্ব দীর্ঘ সময় ধরে টিকে আছে। শুধু তাই নয়, প্রতিদিনই নিজেদের মধ্যে কথা হয়। তা জানিয়েছেন খোদ মেসিই।

[৫] স্পেনের একটি গণমাধ্যমকে মেসি বলেন, হ্যাঁ আমাদের লম্বা সময় ধরে কথা হয়। প্রতিদিনই তিনজনের মধ্যে কথা হয়। কখনও নেইমার কখনও লুইসের (সুয়ারেজ) সঙ্গে। আমরা সম্পর্কটা বজায় রাখার চেষ্টা করি। নেইমার ২২২ মিলিয়ন ইউরোতে পিএসজিতে যোগ দেয়ার পর থেকেই গুঞ্জন সেখানে খুশি নন তিনি। তাই আবারও বার্সার জার্সিতে দেখা যেতে পারে। এমন সংবাদ অনেকবার প্রকাশ হয়েছে। তবে ব্রাউগ্রানা দলটির অধিনায়কের মতে তা প্রায় অসম্ভব।

[৬] প্যারিসকে এত টাকা কীভাবে দিবেন? এতটাও সহজ কাজ নয় এটি। প্রেসিডেন্টের জন্য বড় সমস্যা নিয়ে আসবে। দলগঠন করতে তাকে অবশ্যই অনেক বুঝে শুনে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। যোগ করেন মেসি।

[৭] দলের আর্থিক সংকটের কথা সামনে টেনে বার্সা দলনায়ক বলেন, নতুন খেলোয়াড় আনতেও বড় সমস্যা সৃষ্টি হবে। কারণ আমাদের কাছে অর্থ নেই। দলে অনেক গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় রয়েছে। তাদেরকে পারিশ্রমিক দিতেই যুদ্ধ করতে হবে। কয়েকদিন আগেই নেইমার জানিয়েছিলেন মেসির সঙ্গে খেলতে মুখিয়ে আছেন তিনি। বিষয়টি স্পষ্ট করে মেসি বলেন, তিনি কিন্তু বলেনি চলো খেলি। তিনি বলেছেন, খেলতে আগ্রহী। তাই না?

[৮] ফ্রান্সের হয়ে বিশ্বকাপ জয়ী তারকা আঁতোয়া গ্রিজমানের সঙ্গে মেসির সম্পর্ক ভালো নয়। এমন গুজবকে উড়িয়ে দিয়েছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। অনেক বার বলা হয়েছে, তার সঙ্গে আমার সর্ম্পক খুবই ভালো। আমাদের কোনওদিন বাজে সর্ম্পক ছিল না। অনেকেই বলেছিল তার বার্সায় যোগ দেয়াটা আমার পছন্দের নয়। এগুলো সব গুজব। এখনও সব কিছুই স্পষ্ট। ড্রেসিং রুম ও বেড়াতে গেলে আমরা প্রায়ই এক সঙ্গে পান করে। আমাদের মধ্যে কোনও দ্বন্দ্ব নেই। আরটিভি নিউজ / মার্কা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত