প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] চৌগাছায় গ্রামবাসীর সেচ্ছাশ্রমে ২ কিলোমিটার রাস্তা নির্মান

বাবুল আক্তার: [২] যশোরের চৌগাছায় সমাজসেবায় উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ কয়ারপাড়া গ্রামের বাসিন্দারা। গ্রামবাসীর নিজ উদ্যাগে প্রায় ২ কিলোমিটার রাস্তা নির্মান করেছেন। স্থানীয় ইউপি সদস্য শান্ত ইসলাম ও আব্দুস সামাদের নেতৃত্ত্বে শত শত গ্রামবাসী স্বেচ্ছায় রাস্তা নির্মানের কাজে অংশগ্রহণ করেছেন।

[৩] মঙ্গলবার সরেজমিনে গেলে রাস্তা নির্মান কাজের এলাকাবাসী জানান, কয়ারপাড়া গ্রাম থেকে চাকলার বিলের মাঠ পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার দুরত্ব। কিন্তু এর মাঝে কোনো রারাস্তা নেই। সেকারনে এই মাঠে ট্রলার, ট্রক্টর, পাওয়ারটিলার নেওয়া যায়না। এজন্য ফসল তুলতে বর্ষা মৌসুমে আমাদের চরম ভোগান্তি পেতে হয়। অনেক সময় ফসলের বড় একটা অংশ নষ্টও হয়ে যায়। তাই আমরা গ্রামবাসী নিজ উদ্যোগে রাস্তা নির্মান কাজ শুরু করেছি।

[৪] রাস্তা নির্মান কাজের উদ্যোক্তা আব্দুস সামাদ জানান ‘বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য শান্ত ইসলামের সাথে কথা বলি। শান্ত ইসলাম গ্রামের গন্যমান্যদের সাথে কথা বললে সকলেই রাস্তা নির্মানের জন্য একমত হয়। রাস্তা নির্মানের জন্য গ্রামের ইসমাইল, তাহাজ্জেল, আমজার গাজী, আতিয়ার, আশা, আহমেদ, শহিদুল ইসলাম পরানসহ ৬৫ জন জমি দিতে রাজি হন’। পরে গ্রামবাসীকে সংগঠিত করে গতকাল মঙ্গলবার রাস্তা নির্মা কাজের প্রথম দিনে গ্রামের প্রায় দুইশতাধীক মানুষ অংশ নিয়োছেন।

[৫] স্বেচ্ছায় রাস্তা নির্মান কাজে অংশগ্রহনকারি শামিম জানান, গ্রামের এই মাঠে কোনো রাস্তা না থাকায় গরুর গাড়ি অথবা নিজেদের মাথায় করে ফসল তুলতে হয়। যে কারনে আমরা নিজেরাই জমি দিয়ে রাস্তা নির্মান করছি। শামিমের পাঁচটি টলি রাস্তা নির্মানের জন্য কাজ করছে বলেও তিনি জানান।

[৬] রাস্তায় জমি দাতা শহিদুল ইসলাম পরান বলেন, আমার ক্ষতিহলেও গ্রামের হাজার হাজার মানুষের উপকার হবে এজন্য আমি খুশি।

[৭] স্থানীয় ইউপি সদস্য শান্ত ইসলাম বলেন, গ্রামবাসীকে সাথে নিয়ে যে রাস্তা নির্মান করছি। আশা করি পরবর্তীতে এই রাস্তা সরকারি ভাবে পাকাকরন হবে।

[৮] স্বেচ্ছায় রাস্তা নির্মানের জন্য গ্রামবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম বলেন, কয়ারপাড়া মাঠে একটি রাস্তা নির্মানের জন্য গ্রামবাসী আমাকে জানিয়েছিল। রাস্তা সরকারি তালিকাভুক্ত না হওয়ায় পরিষদের পক্ষ থেকে কিছু করতে পারেনি। রাস্তাটি সরকারি তালিকাভুক্ত করে এর উন্নয়নের জন্য কাজ করা হবে। সম্পাদনা: সাদেক আলী

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত