প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিকেট ও ভর্তির কাগজে ঔষধ কোম্পানির বিজ্ঞাপন

এএইচ রাফি: [২] ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের সরকারি টিকেটে ও ভর্তির কাগজে ঔষধ কোম্পানীর বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছে। এনিয়ে দুইটি ঔষধ কোম্পানির কাছ থেকে বিপুল অংকের আর্থিক সুবিধা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তবে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা টিকেট গুলো অনেক আগের বলে দাবি করেন।

[৩] খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগে আসা রোগীদের ৫টাকার বিনিময়ে টিকেট সংগ্রহ করতে হয়। সেই টিকেটের গায়ে ড্রাগ ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি ঔষধ কোম্পানির ৫টি ঔষধের নাম বিজ্ঞাপন দেওয়া রয়েছে। ঔষধ গুলো হলো- ফুক্লাভ, টি-সেফ, ফ্লুপেন, পেইর ও প্রোনেক্স।

[৪] এছাড়াও রোগীর ভর্তির জন্য ৮টাকা করে কাটতে হয় ফরম। ওই ফরমের কাগজেও এরোস্টো ফার্মা নামের একটি ঔষধ কোম্পানির ৫টি ঔষধের বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছে। ভর্তি ফরমে এক্সন, আপ্যালসেট, ইমেপ, ওমেপ ও ওরাডল এর নাম লেখা রয়েছে।

[৫] অভিযোগ রয়েছে সরকারি এই টিকেটের গায়ে ঔষধ কোম্পানির বিজ্ঞাপন দিতে বিপুল অংকের অর্থ লেনদেন করা হয়েছে।

[৬] তবে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অভিজিৎ রায় বলেন, টিকেট গুলো অনেক আগের। আমি যোগদান করারও আগে ঔষধ কোম্পানি টিকেট গুলো দিয়েছিল বলে জানতে পেরেছি। এক প্রশ্নের জবাবে ডা. অভিজিৎ রায় বলেন, সরকারি এই কাগজে ঔষধ কোম্পানির বিজ্ঞাপন দেওয়ার কোন সুযোগ নেই। আমি বিষয়টি খোঁজ নিয়ে টিকেট গুলো না দিতে বলবো।।

[৭] স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অভিজিৎ রায় নাসিরনগরে উপজেলা কমপ্লেক্সে দেড় বছর আগে যোগদান করেন। তার দেওয়া তথ্যে যদি তিনি দেড় বছর আগে যোগদান করে থাকেন, তাহলে গত দেড় বছরেও ঔষধ কোম্পানির বিজ্ঞাপন যুক্ত টিকেট কেন বাতিল করা হয়নি?

[৮] এই বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডা. একরাম উল্লাহ জানান, কোন অবস্থাতে হাসপাতালের সরকারি টিকেটে কোন ঔষধ কোম্পানির বিজ্ঞাপন দিতে পারেন না। আমি খোঁজ নিচ্ছি। এই বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত