প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

করোনাতেও ‘রূপের রানি’ রাঙ্গামাটিতে বাড়ছে পর্যটকদের ভিড়

ফরহাদ বিন নূর: রাঙ্গামাটি বাংলাদেশের পার্বত্য জেলা গুলোর মধ্যে একটি এবং আয়তনে বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা। ১০টি ভাষাভাষীর ১১টি জনগোষ্ঠীর নিজস্ব সাংস্কৃতিক, নৃতাত্ত্বিক কৃষ্টি এবং প্রকৃতির অপার সৃষ্টি এই জেলা বাংলাদেশের পর্যটনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ স্থান।

রাঙ্গামাটি জেলার জনপ্রিয় ভ্রমণ স্থান গুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ হলো: কাপ্তাই হ্রদ, ঝুলন্ত সেতু, রাজবন বিহার, শুভলং ঝরনা, সাজেক ভ্যালী, নৌ বাহিনীর পিকনিক স্পট, কাপ্তাই বাঁধ ও কর্ণফুলি পানিবিদ্যুৎ কেন্দ্র, কাপ্তাই জাতীয় উদ্যান, বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্সনায়েক মুন্সী আব্দুর রউফ স্মৃতি ভাস্কর্য, উপজাতীয় জাদুঘর, কর্ণফুলি কাগজ কল, বেতবুনিয়া ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্র, প্যানোরমা জুম রেস্তোরা, পেদা টিং টিং রেস্তোরা, টুকটুক ইকো ভিলেজ, চিৎমরম বৌদ্ধ বিহার, বনশ্রী পর্যটন কমপ্লেক্স, ডলুছড়ি জেতবন বিহার ইত্যাদি।

এক কথায় পাহাড়-নদী-ঝরনার অনন্য মিশেলে গড়া প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটি। প্রাকৃতিক পরিবেশ, জীব বৈচিত্র আর কাপ্তাই লেকের অপরূপ সৌন্দর্যে মুগ্ধ পর্যটকরা।

পাহাড়-নদী-ঝরনার অনন্য মিশেলে গড়া প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটি। প্রাকৃতিক পরিবেশ, জীব বৈচিত্র আর কাপ্তাই লেকের অপরূপ সৌন্দর্যে মুগ্ধ পর্যটকরা। করোনা মহামারিরর মধ্যেও কাপ্তাই হ্রদ আর পাহাড়ের সৌন্দর্য উপভোগ করতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পর্যটকরা পরিবার-পরিজন নিয়ে ছুটে যাচ্ছেন রাঙ্গামাটিতে। নৈসর্গিক সৌন্দর্য আর বৈচিত্রময়তার কারণে পর্যটকদের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে রাঙ্গামাটি। পাহাড়-লেকের নয়নাভিরাম দৃশ্য আকৃষ্ট করছে পর্যটকদের।

এদিকে পর্যটন অবকাঠামোগত নানা সুযোগ সুবিধা না থাকার অভিযোগ তুলেলেন পর্যটকরা। নৈসর্গিক শোভামন্ডিত রাঙ্গামাটিকে আরো আর্কষণীয় করে তুলতে সরকারকে আরো কার্যকর উদ্যোগ নেয়ার কথা বললেন পর্যটকরা।

প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্যকে পুঁজি করে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে পর্যটন শিল্প গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে বলে মনে করছেন পর্যটকরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত