প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কাশ্মীরে ভূমি দখলমুক্ত করার অজুহাতে কেটে ফেলা হচ্ছে আদিবাসীদের আপেল বাগান

আব্দুল্লাহ যুবায়ের: [২] বনভূমি বিধি-২০০৬ রক্ষার নামে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতের কাশ্মীর বন বিভাগ।এনডিটিভি

[৩] কানি দাজান আপেল গাছে ভরপুর জম্মু-কাশ্মীরের একটি বড় ও প্রসিদ্ধ গ্রাম। কাশ্মীরের অন্যান্য গ্রামের মত এ গ্রামটির আপেল গাছগুলোও আগামী বছর নাগাদ কেটে ফেলবে রাজ্যটির দায়িত্বপ্রাপ্ত বিভাগ। সরকার চাইলে আপেল গাছসহ বনভূমিগুলো তাদের হস্তগত করতে পারে। তা না করে আপেল গাছ কেটে ফেলার সিদ্ধান্তে মর্মাহত হয়েছেন সেসব অঞ্চলের বাসিন্দারা। ভারতজুড়ে সমালোচিত হচ্ছে বিষয়টি।

[৪] ফারুক আহমেদ নামে একজন কৃষক বলেন, আমাদের আয়ের কোন মাধ্যম নেই। চাষাবাদ করেই জীবন চলে। সরকার আপেল গাছসহ ভূমিগুলো উদ্ধার করে আমাদের তা চাষাবাদের সুযোগ দিলে, আমরা উপকৃত হব। কিন্তু আমাদের সে সুযোগ দেয়া হচ্ছে না।

[৫] বাসারাত নামের একজন তরুণ বলেন, আমরা পূর্ব পুরুষ থেকে এ জমিগুলো চাষাবাদ করছি। আমরা এ জমিগুলোর মালিকানা দাবি করছি না। বরং চাষাবাদের সুযোগ চাচ্ছি। কিন্তু সরকার কোন রকম সুযোগ না দিয়ে আমাদের উচ্ছেদ করছে। কেটে ফেলছে আমাদের হাজার হাজার আপেল গাছ। সম্পাদনা: আসিফুজ্জামান পৃথিল

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত